শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১০ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ মে, ২০২১ ২৩:৩৭

ঈদের কেনাকাটায় গ্রামের নারী-পুরুষ

জয়পুরহাট প্রতিনিধি

Google News

ঈদের আর মাত্র কয়েক দিন বাকী। শেষ সময়ে জয়পুরহাটে কাপড়ের দোকানগুলোতে উপচে পড়া ভিড়। ক্রেতা সামলাতে দোকানের বিক্রয় কর্মীরা হিমসিম খাচ্ছেন।  গভীর রাত অবধি চলছে বেচা বিক্রি। বোরো ধানের দামও বেশ ভালো। ভালো দাম পেয়ে ধান বিক্রির টাকায় ঈদের বাজার করতে দোকানে ভিড় বেড়েছে গ্রামের নারী পুরুষ ক্রেতাদের। গতকাল শহরের নিউমার্কেট, মাড়োয়ারি কাপড়পট্টি, পূর্ববাজারের দোকানগুলোতে সরেজমিন দেখা গেছে, ক্রেতাদের নতুন পোশাক কেনার জন্য উপচে পড়া ভিড়।

তৈরি পোশাকের দোকানে বিক্রি হচ্ছে মেয়েদের থ্রি-পিচ সব চেয়ে বেশি। বেচা বিক্রিতে পিছিয়ে নেয় শাড়ি লুঙ্গির দোকানিরাও। সদর উপজেলার দোগাছি গ্রামের কৃষক লুৎফর রহমান, ঈদের নতুন জামা কাপড় কেনার জন্য স্ত্রী পুত্র কন্যাকে নিয়ে বাজারে এসেছেন। তিনি জানালেন বোরো ধান কাটা মাড়াইয়ের কাজে ব্যস্ত থাকায় আসতে পারিনি। ধানের দাম ভালো থাকায় ঈদের কেনা কাটায় এবার সমস্যা হয়নি। জামা কাপড় পেয়ে পরিবারের সবাই খুশি। ধারকি গ্রামের মশিউর রহমান জানালেন সকাল থেকে গ্রামের মানুষ কেনাকাটা করতে আসছেন। তিনিও ধান বিক্রি করে ঈদের কেনা কাটা করেছেন। শহরের নিউমার্কেটের ফেমাস বস্ত্র বিতানের বিক্রয়কর্মী  মারুফ হাসান জনি জানালেন, বেচা বিক্রি ভালো। রোজার অল্প সময়ে দোকান খোলা পেয়েছে মানুষ, এ জন্য কিনতে আসা মানুষের ভিড় বেশি। সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত সাধারণত গ্রামের ক্রেতা বেশি। আর সন্ধ্যার পর শহরের ক্রেতা আসছেন কিনতে। পূর্ব বাজারে করিম গেজ্ঞিস্টোর, বাবু গার্মেন্টস, তনুশ্রী বস্ত্রালয়, দুর্গাবস্ত্রালয়ে উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। বানিয়াপাড়া গ্রামের নাজমুল হাসান বলেন, তিনি জিন্সের প্যান্ট ও পাজ্ঞাবি কিনেছেন। গত বছরের দামের চেয়ে এবার দাম একটু বেশি। ব্যবসায়ীরা বলছেন, লকডাউনে  দোকান পাট বন্ধ ছিল। খোলার পর  থেকে বেচা বিক্রি শুরু হয়েছে। ঈদের আগ মুহূর্তে বিক্রি বেড়েছে।