শিরোনাম
মঙ্গলবার, ৯ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা

২৩১ দিন পর সচল হচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

২৩১ দিন পর সচল হচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশন

হেফাজত তান্ডবে বন্ধ হয়ে যায় স্টেশনটি

২৩১ দিন পর আবার সচল হচ্ছে হেফাজতে ইসলামের তান্ডবে বিধ্বস্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশন। প্রয়োজনীয় সংস্কার শেষে ১৩ নভেম্বর স্টেশনটি উদ্বোধনের কথা রয়েছে। ওই দিন থেকেই পূর্বাঞ্চল রেলপথে যাতায়াতকারী ট্রেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেশনে নির্ধারিত যাত্রাবিরতি করবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। এত দিন ট্রেনের যাত্রাবিরতি বন্ধ থাকায় যাত্রীদের সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা জানান, পূর্বাঞ্চল রেলপথের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশনে প্রতি মাসে অর্ধ কোটি টাকার টিকিট বিক্রি হয়। ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-সিলেট ও ঢাকা-নোয়াখালী রুটে চলাচলকারী সাতটি আন্তনগর, সাতটি মেইল ও কমিউটার ট্রেন যাত্রাবিরতি করে এ স্টেশনে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে ২৬-২৮ মার্চ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তান্ডব চালান হেফাজতে ইসলামের কর্মী-সমর্থকরা। তারা রেলস্টেশন, পুলিশ সুপার, সিভিল সার্জন, পৌরসভা ও জেলা পরিষদ কার্যালয়, সুরসম্রাট আলাউদ্দিন সংগীতাঙ্গন, জেলা গণগ্রন্থাগারসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি স্থাপনায় ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশনটিতে ভাঙচুর করা হয় ২৬ মার্চ বিকালে। পুড়িয়ে দেওয়া হয় স্টেশন মাস্টারের কক্ষ, টিকিট কাউন্টার ও নিয়ন্ত্রণ কক্ষ। সিগন্যালিং সিস্টেম পুরোপুরি ধ্বংস করে ফেলায় ২৭ মার্চ থেকে এ স্টেশনে সব ট্রেনের নির্ধারিত যাত্রাবিরতি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেন রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এতে দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীরা। ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশনের মাস্টার শোয়েব বলেন, সংস্কার কাজ শেষ পর্যায়ে। ১৩ নভেম্বর উদ্বোধনের কথা রয়েছে। সে লক্ষ্যে সব প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। উদ্বোধনের দিন থেকেই এ স্টেশনে ট্রেন যাত্রাবিরতি করবে।

সর্বশেষ খবর