Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ মে, ২০১৯ ২০:৫৪

মাছ চুরিতে বাধা দেওয়ায় মুক্তিযোদ্ধার উপর সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ

বাগেরহাট প্রতিনিধি :

মাছ চুরিতে বাধা দেওয়ায় মুক্তিযোদ্ধার উপর সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মুক্তিযোদ্ধা খান আব্দুল আউয়াল
বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলায় চিংড়ি খামারের মাছ চুরিতে বাধা দেয়ায় খান আব্দুল আউয়াল নামে এক মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। আহত ঐ মুক্তিযোদ্ধাকে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা এই হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। 
 
উপজেলার আড়ুয়াবর্নি গ্রামের আহত মুক্তিযোদ্ধা খান আব্দুল আউয়ালের বড় ছেলে মো. এনায়েত আলী খান জানান, গত রাতে তাদের চিংড়ি খামার থেকে একই গ্রামের টুটুল খান ও হাবিবুর রহমান খানের নেতৃত্বে ৫ থেকে ৬ জনের একটি দল মাছ চুরি করছিল। এ সময় তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা খান আব্দুল আউয়াল তাদের বাধা দিলে তারা বাবাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে রক্তাক্ত আহত করে। 
 
রাতেই প্রতিবেশীরা আহতকে উদ্ধারের পর চিতলমারী উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। তবে মুঠোফোনে অভিযোগ অস্বীকার করেছে টুটুল খান ও হাবিবুর। তারা দাবি করেন, ঘটনার বিষয়ে কিছুই জানেন না। 
 
চিতলমারী থানার পরিদর্শক (ওসি) অনুকুল সরকার জানান, মুক্তিযোদ্ধা খান আব্দুল আউয়ালের বড় ছেলে মো. এনায়েত আলী খান বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন যে, তার বাবার উপর সন্ত্রাসীরা হামলা করেছে।। বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
  
চিতলমারী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার শেখ আবু তালেব ও মুক্তিযোদ্ধা কাঞ্চন দাড়িয়াসহ স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা জানান, মুক্তিযোদ্ধা খান আব্দুল আউয়াল একজন ন্যায় ও নিষ্ঠাবান মানুষ। তারা এই ন্যাক্কারজনক হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।
 
বিডি-প্রতিদিন/শফিক

আপনার মন্তব্য