শিরোনাম
প্রকাশ : ১২ জুলাই, ২০২০ ২০:৪৯

'অহমিকা ও অহংকার করে লাভ নেই'

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

'অহমিকা ও অহংকার করে লাভ নেই'
ফাইল ছবি

সম্প্রতি করোনাকালে মারা যাওয়া দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের রুহের মাগফেরাত কামনায় নিজ উদ্যোগে দোয়া অনুষ্ঠান করছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান। রবিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার মিলনায়তনে ওই দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় প্রায় ১ হাজার মানুষের মধ্যে শাড়ি ও লুঙ্গী বিতরণ করেন তিনি।

 
অনুষ্ঠানে বক্তব্যে শামীম ওসমান বলেন, করোনা আমাদের বাস্তবতা শিখিয়েছে। দেখিয়েছে কে প্রকৃত ক্ষমতাবান। অহমিকা অহংকার করে লাভ নেই। দুনিয়াতে কত ক্ষমতা প্রভাব কোনো কিছুই চিরস্থায়ী নয়। ছোট্ট একটি ভাইরাসের মাধ্যমে আল্লাহতায়ালা তা আমাদের জানিয়ে দিয়েছেন। এই পরিস্থিতি থেকে আমাদের শিক্ষা নেয়া দরকার যে আমরা পৃথিবীতে মাত্র কিছুক্ষণ সময়ের জন্য এসেছি। এই জীবনে মৃত্যু হবে। কিন্তু আখেরাতের জীবনে আমাদের কোনো মৃত্যু হবে না। সেই আখেরাতকে টার্গেট করেই আমাদের দুনিয়াতে কল্যাণের জন্য কাজ করে যেতে হবে। 

তিনি আরও বলেন, করোনা বুঝিয়েছে কে আপন কে পর । এটি আমাদের জন্য অনুসরণীয় দৃষ্টান্ত। তাই আমরা কেউ কারো সাথে অহংকার করবো না। অহমিকা দেখাবো না। সবার জন্য সবাই সহজ হই। একে অপরের দিকে সহায়তার হাত বাড়াই। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আপনারাই দেখেন বর্তমান করোনায় বিশ্বের উন্নত দেশ হিমশিম খাচ্ছে। কিন্তু আল্লাহর রহমত, খায়ের ও বরকত আমাদের হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই করোনায় অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। দেশের প্রত্যেক শ্রেণীকে ধীরে ধীরে প্রণোদনার আওতায় নিয়ে আসছেন। 

শামীম ওসমান বলেন, সারা বিশ্বে যে অর্থনীতিতে মহামন্দা আসছে। আমাদের এই মহামন্দা সম্মিলিতভাবে মোকাবেলা করতে হবে। কিন্তু কিছু মানুষ আছে যারা বর্তমানের দুসঃসময়ের মধ্যেও চুরি করছে। তারা অর্থের জন্য করোনা সার্টিফিকেট বিতরণ করে প্রতারণা করছে। এর বিরুদ্ধে আমাদের সতর্ক হতে হবে। 

তিনি আরও বলেন, আমাদের বেঁচে থাকার জন্য সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। আমাদের একটু অসচেতনতার জন্য অনেক ক্ষতি হতে পারে। 

জাতির যে বীর সন্তানদের জন্য এই দোয়ার আয়োজন করা হয় তারা হলেন-  মরহুম আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিম, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ, সাবেক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী সাহারা খাতুন, সিলেন সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র বদরুদ্দিন কামরান, জাতীয় অধ্যাপক ডঃ আনিসুজ্জামান, ভাষা সৈনিক কামাল লোহানী। 

এছাড়া করোনা কালীন সাংবাদিক, ডাক্তার, প্রকৌশলীসহ যে সব জাতীয় বীর মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের স্মরণে হাত তুলে দোয়া মাগফেরাত কামনা করা হয়। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ বাদল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা। পরে তিনি এক হাজার দুস্থ মানুষের মধ্যে শাড়ি, লুঙ্গি ও নগদ অর্থ বিতরণ করেন।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর