শিরোনাম
প্রকাশ : ৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ২১:১৬
প্রিন্ট করুন printer

রংপুরে ডিবি পরিচয়ে ছিনতাই ও হত্যায় অস্ত্রসহ গ্রেফতার ৪

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

রংপুরে ডিবি পরিচয়ে ছিনতাই ও হত্যায় অস্ত্রসহ গ্রেফতার ৪

রংপুরের মিঠাপুকুরে র‌্যাব ও ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই এবং সাদেক বাদশা (৪৫) নামে এক গরু ব্যবসায়ীকে হত্যার ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। 

শনিবার সন্ধ্যায় রংপুর নগরীর তাজহাট এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতারের বিষয়টি এক বিজ্ঞপ্তিতে নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১৩-এর মিডিয়া কর্মকর্তা এএসপি খন্দকার গোলাম মোর্ত্তুজা।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ব্যবহৃত ২টি বিদেশি পিস্তল, ১টি দেশী পিস্তল, একটি লোহার দণ্ড, ৮টি মোবাইল ফোন এবং ২৯টি সীমকার্ড উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, রংপুর সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র ফরিদা কালামের ভাড়া বাড়িতে ঘটনার সঙ্গে জড়িত কয়েকজন সদস্য অবস্থান করছেন-এমন গোপন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৩ এর একটি বিশেষ দল শুক্রবার অভিযান চালায়। এ সময় ওই বাড়ি থেকে ঘটনার সঙ্গে জড়িত চার জনকে গ্রেফতার করা হয়। 

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, কুড়িগ্রামের রাজারহাট থানাধীন বালাকান্দি গ্রামের হামিদ মণ্ডলের ছেলে প্রধান পরিকল্পনাকারী ও সমন্বয়ক মেহেদী হাসান শিলু (২৪), মৃত ইসমাইল হোসেনের ছেলে আতাউর রহমান আপেল (২৬), পান্থাপাড়া গ্রামের পবিত্র রায়ের ছেলে স্মরণ রায় (২০) ও কুড়িগ্রাম সদরের নয়াগ্রাম (চামড়াগোলা) এলাকার রবিউল ইসলামের ছেলে মঞ্জুরুল ইসলাম ভুট্টো। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানান র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, গত ২৫ নভেম্বর রাত ৮টার দিকে কয়েকজন গরু ব্যবসায়ী লালমনিরহাটের বড়বাড়ি হাটে গরু বিক্রি করে নিজেদের গ্রাম দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার নলেয়ায় ফিরছিলেন। পথেমধ্যে রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার বৈরাগীগঞ্জ-বলদীপুকুর সড়কের সিএনজি পাম্প সংলগ্ন স্থানে মাইক্রোবাসে আসা কয়েকজন ব্যক্তি তাদের গতি রোধ করেন। এ সময় তারা মাইক্রোবাস থেকে নেমে নিজেদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য পরিচয় দিয়ে তাদের (গরু ব্যবসায়ী) কাগজপত্র যাচাই করতে থাকেন।

এক পর্যায়ে তিনজনের কাছ থেকে তিন লাখ টাকা কেড়ে নিয়ে তারা চলে যেতে চাইলে গরু ব্যবসায়ীরা মাইক্রোবাসটি আটকানোর চেষ্টা করেন। এ সময় দুষ্কৃতকারীরা সাদেক বাদশা নামে এক গরু ব্যবসায়ীকে মাইক্রোবাস চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে সঙ্গে থাকা অন্য ব্যবসায়ীরা স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

এ ঘটনার চারদিন পর গত ২৯ নভেম্বর মিঠাপুকুর থানাধীন পায়রাবন্দ বেতগাড়া হাফিজিয়া মাদরাসার মাঠ থেকে একটি মাইক্রোবাস উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত মাইক্রোবাসের সূত্র ধরে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের সন্ধান পায় র‌্যাব।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর