শিরোনাম
প্রকাশ : ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৮:১৫
আপডেট : ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২০:২৫
প্রিন্ট করুন printer

সিদ্ধিরগঞ্জে গানবাজনা নিষিদ্ধ করল কাউন্সিলর

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি

সিদ্ধিরগঞ্জে গানবাজনা নিষিদ্ধ করল কাউন্সিলর
কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের সিদ্ধিরগঞ্জ অঞ্চলের ৩ নম্বর ওয়ার্ডে গানবাজনা ‘সম্পূর্ণ নিষেধ’ করেছেন স্থানীয় কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল। তবে এ ঘোষণা কার্যকর হবে আগামী শনিবার থেকে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ায় একটি ভিডিওতে দেখা যায় কাউন্সিলর নিজে এক ব্যক্তির মাধ্যমে এই ঘোষণা দেন।

ভিডিওতে দেখা যায়, কাউন্সিলর শাহজালার বাদল এক ব্যক্তিকে বক্তব্য দিতে বলছেন। ওই ব্যক্তি উপস্থিত সকলের উদ্দেশে বলছেন, ‘আগামীকাল কাউন্সিলর অফিস থেকে চিঠি ইস্যু করবে প্রত্যেক মসজিদ কমিটির সভাপতি ও সেক্রেটারি এবং এলাকার পঞ্চায়েত কমিটির কাছে। আগামী শুক্রবার যার যার মসজিদের ইমাম ও খতিব সাহেবকে বলে দেবেন যারা বয়ান করবে তারা যেন এটা নিয়ে আলোচনা করে এবং প্রত্যেক মসজিদে বলে দেবেন শনিবার থেকে অত্র এলাকায় গানবাজনা সম্পূর্ণ নিষেধ। ওই চিঠির রেফারেন্স দিয়ে আপনারা প্রত্যেক বাড়িওয়ালাকে আবার চিঠি ইস্যু করবেন মসজিদ কমিটি ও পঞ্চায়েত কমিটি যৌথভাবে। কোনো রকম যাতে গানবাজনা আর অত্র এলাকায় মুসলমান সমাজে যেন না হয়। এটা আমরা সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সবাই সিদ্ধান্তে একমত থাকবো।’

এলাকাবাসী জানান, ‘সম্প্রতি নূরবাগ এলাকার মসজিদের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সাত্তার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এর জন্য ওই রাতে এলাকায় উচ্চ শব্দে গানবাজনাকে দায়ী করেন স্থানীয় কয়েকজন। এনিয়ে গত সোমবার রাতে বটতলা এলাকায় কাউন্সিলর অফিসে বিভিন্ন মসজিদ কমিটি ও পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি ও সেক্রেটারি মিলিত হয়ে সভা করেন।

সভা শেষে সানারপাড় পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা শ্রমিকলীগ নেতা পরিচয়দানকারী মহিউদ্দিন আহমেদ মোল্লা কাউন্সিলর শাহজালাল বাদলের নির্দেশে গানবাজনা বন্ধের ঘোষণা দেন। ভিডিও প্রকাশের পর থেকে সানারপাড় পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ মোল্লার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যাওয়ায় তার বক্তব্য নেওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল বলেন, সোমবার রাতে নূরবাগ এলাকার মসজিদের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সাত্তার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। ওই বাড়ির পাশে উচ্ছৃঙ্খল যুবকেরা উচ্চ শব্দে ডিজে পার্টির নামে গানবাজনা করছিল। স্থানীয় বিভিন্ন মসজিদ কমিটি ও পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি ও সেক্রেটারি মিলিত হয়ে গানবাজনা বন্ধের এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এ সিদ্ধান্ত আমার না।

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিক বলেন, ‘গানবাজনা বন্ধের বিষয়ে কাউন্সিলরকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি অস্বীকার করে বলেন তিনি এ ঘোষণা দেননি। যিনি বক্তব্য দিয়েছেন তিনি দক্ষিণ সানারপাড় মসজিদ কমিটির সভাপতি।’

তিনি আরো বলেন, ‘এভাবে গানবাজনা বন্ধের বিষয়ে বলতে পারেন না। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর