শিরোনাম
প্রকাশ : ৪ মার্চ, ২০২১ ১৯:৩৯
প্রিন্ট করুন printer

'কুমিল্লা ইপিজেডে কর্মসংস্থান হবে ৫০ হাজার মানুষের'

মহিউদ্দিন মোল্লা, কুমিল্লা

'কুমিল্লা ইপিজেডে কর্মসংস্থান হবে ৫০ হাজার মানুষের'

কুমিল্লা ইপিজেডে আরও ১২টি প্রতিষ্ঠান চালু হতে পারে। এসব প্রতিষ্ঠান চালু হলে কুমিল্লা ইপিজেডে কর্মসংস্থান হবে ৫০ হাজার মানুষের। এ পর্যন্ত এখানে মোট বিনিয়োগ এসেছে ৪৩৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, রপ্তানি হয়েছে ৩,৬৯৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য সামগ্রী।

কুমিল্লা জেলা তথা দেশের সার্বিক উন্নয়নে কুমিল্লা ইপিজেডের ভূমিকা শীর্ষক সম্পর্কে সাংবাদিকদের অবহিতকরণের লক্ষে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান বেপজার মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) নাজমা বিনতে আলমগীর। বৃহস্পতিবার কুমিল্লা ইপিজেড কানফারেন্স রুমে এ প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়।

প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি জানান, কুমিল্লা ইপিজেডে বর্তমানে ৩৪ হাজার ৫৪৩ জন কর্মরত আছে। যার মধ্যে নারী ২০ হাজার ৮৯৭জন ও পুরুষ ১৩হাজার ৬৪৬ জন। নারীর ক্ষমতায়নে এটা এক ধরনের বিপ্লব। কুমিল্লা ইপিজেডে বর্তমানে ৪৭টি শিল্প প্রতিষ্ঠান রয়েছে। যার মধ্যে ‘এ’ ক্যাটাগরির ২৫টি বিদেশি প্রতিষ্ঠান; ‘বি’ ক্যাটাগরির ১৩ টি দেশি-বিদেশি প্রতিষ্ঠান, এবং ‘সি’ ক্যাটাগরির ৯টি দেশি প্রতিষ্ঠান। কুমিল্লায় আরও ১২টি প্রতিষ্ঠান চালু হতে পারে। এসব প্রতিষ্ঠান চালু হলে কুমিল্লা ইপিজেডে কর্মসংস্থান হবে ৫০ হাজার মানুষের।

নাজমা বিনতে আলমগীর জানান, বাংলাদেশের বিনিয়োগকারীরা ছাড়াও চীন, তাইওয়ান, হংকং, নেদারল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, জাপান, যুক্তরাজ্য, তুরস্ক, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, দক্ষিণ কোরিয়া, সিঙ্গাপুর, কানাডা ও ইন্দোনেশিয়ার বিনিয়োগকারীরা কুমিল্লা ইপিজেডে বিনিয়োগ করছে। কুমিল্লা ইপিজেডে উৎপাদিত পণ্যের মধ্যে রয়েছে গার্মেন্টস, গার্মেন্টস অ্যাক্সেসরিজ, স্যুয়েটার, ফেব্রিক্স, টেক্সটাইল ডাইজ অ্যান্ড অক্সিলিয়ারিস, ইলেক্ট্রনিকস পার্টস, অ্যালিমেনেটিং ব্রাশ, ফুটওয়্যার ও ফুটওয়্যার আপারস, ক্যামেরা কেইস, ব্যাগ, প্লাস্টিক পণ্য, ইয়ার্ন, হেয়ার ও ফ্যাশন অ্যাক্সেসরিজ, মেডিসিন বক্স, আই প্যাচ, কার্পেট, গ্লোভস, লাগেজ, মেডেল ও পেপার প্রোডাক্ট।

এ সময় সাংবাদিকদেও প্রশ্নের জবাবে জানান, কুমিল্লা ইপিজেডের তরল বর্জ্য শতভাগ পরিশোধন হচ্ছে, এই তরল বর্জ্য পরিবেশের কোন ক্ষতি করছে না। এ সময় কুমিল্লা ইপিজেডের মহা-ব্যবস্থাপক মো.জিল্লুর রহমানসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।  

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর