শিরোনাম
প্রকাশ : ৫ মে, ২০২১ ১৮:৪৬
প্রিন্ট করুন printer

নাটোরে আবাদি জমি কেটে চলছে অবৈধ পুকুর খনন

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরে আবাদি জমি কেটে চলছে অবৈধ পুকুর খনন
Google News

নাটোরের ভেদ্রার বিলে আবাদি জমি কেটে চলছে অবৈধ পুকুর খনন। আবাদি জমির মাটি কেটে ইট ভাটায় বিক্রি করার পাশাপাশি পুকুর বানানো হচ্ছে নাটোর শহরের অদূরে বড়হরিশপুর ইউনিয়নের জাঠিয়ান এলাকার ভেদ্রার বিলে। 

শহরের পিটিআই মোড় দিয়ে দক্ষিণে বড়ভিটা পার হয়ে ভেদ্রার বিলে যাওয়া যায়। সেখানে পুরো বিল জুড়েই ধান, গম, মসুর, আখ, ভুট্টা, রসুন, পিঁয়াজ জাতীয় অর্থকরী ফসলের ভালো আবাদ হয়। এখান থেকে ফসলের আবাদ করে সারা বছরের সংসার চালান কৃষকেরা। কিন্তু কিছু অসাধু ব্যবসায়ী পুকুর বানিয়ে কৃষকদের আবাদ নষ্ট করছে। এছাড়াও পুকুরের অতিরিক্ত পানির জলাবদ্ধতার কারণে ফসলি জমিগুলো আবাদের অযোগ্য হয়ে পড়ছে। 

ভেদ্রার বিলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে নাটোর শহরের মীরপাড়া এলাকার মাছের ব্যবসায়ীর চার বিঘা জমিতে প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই রাতের আঁধারে পুকুর কাটা চলছে। জমির লিজ নিয়েছে এম, হোসেন এগ্রো ফিসারিজ লিমিটেডের স্বত্বাধিকারী।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকেরা জানান, ঐ জমিতে পুকুর কাটা হলে তাদের জমিতে আবাদ করা কষ্টকর হয়ে যাবে। পুকুরের উপরিভাগের পানি পাড় ভেদ করে জমিতে এসে জড়ো হলে জলাবদ্ধতার জন্য ফসল ফোলানো যাবে না। 

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মো. শাহরিয়াজ জানান, 'এরকম আবাদি জমিতে প্রশাসনের বিনা অনুমতিতে পুকুর কাটা অবৈধ। এ বিষয়ে তদন্ত করা হবে।'

উল্লেখ্য, অবৈধ পুকুর খননকারীর ৫০ হাজার টাকার পরিবর্তে ১০ লক্ষ টাকা অর্থদন্ড ও ছয় মাসের অজামিনযোগ্য জেল দিলে আবাদি পুকুর কাটা বন্ধ হবে বলে মনে করেন নাটোর সচেতন মহল।

 

বিডি প্রতিদিন / অন্তরা কবির 

এই বিভাগের আরও খবর