শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ জুন, ২০২১ ০২:১৫
প্রিন্ট করুন printer

সুন্দরবনের বাঘ ভারত ঘুরে ১০০ কিলোমিটার হেঁটে ফিরেছে সাতক্ষীরা রেঞ্জে

শেখ আহসানুল করিম, বাগেরহাট

সুন্দরবনের বাঘ ভারত ঘুরে ১০০ কিলোমিটার হেঁটে ফিরেছে সাতক্ষীরা রেঞ্জে
ভারতে রেডিও কলার লাগানোকালে বাঘটির ছবি। ছবি- সংগৃহীত
Google News

সুন্দরবনের বাংলাদেশের সাতক্ষীরা রেঞ্জের প্রায় ৯ বছর বয়সী একটি প্রাপ্ত বয়স্ক রয়েল বেঙ্গল টাইগার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সুন্দরবন বেড়িয়ে ৩টি নদী ও ৩টি দ্বীপ পেরিয়ে ১০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে আবারও ফিরে এসেছে নিজ আবাসস্থলে। নদী ও ম্যানগ্রোভ অরণ্যের দীর্ঘ এই পথ পাড়ি দিতে বাঘটির সময় লেগেছে সাড় ৪ মাস। তবে ভারত সফর করতে গিয়ে সেদেশের ওয়াইল্ড লাইফ বিভাগের ফাঁদে আটক হয়ে গলায় পরতে হয়েছে স্যাটালাইট চিপসযুক্ত রেডিও কলার।

ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া ও আনন্দবাজারের অনলাইন এডিশন থেকে প্রাপ্ততথ্যে বলা হয়েছে, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সুন্দরবনের বশিরহাট রেঞ্জের হরিখালী বন অফিস এলাকা থেকে সেদেশের ওয়াইল্ড লাইফ টিমের সদস্যরা ছাগল দিয়ে ফাঁদে ফেলে গত বছরের ২৭ ডিসেম্বর একটি বাঘ আটক করে। প্রায় ৯ বছরের  প্রাপ্তবয়স্ক ওই বাঘটিকে চেতনানাশক ইনজেকশন পুশ করে বেঁধে বন অফিসে নিয়ে তার গলায় স্যাটালাইট চিপসযুক্ত রেডিও কলার পরিয়ে সুন্দরবনের ভারতীয় অংশে ছেড়ে দেয়। পরে ওই বাঘটির গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করতে থাকেন তারা। কয়েকদিন পরে তারা দেখতে পান বাঘটি বাংলাদেশের সুন্দরবন অভিমুখে রয়েছে। বাঘটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের ছোট হরিখালী, বড় হরিখালী নদী ও বাংলাদেশের রায়মঙ্গল নদীসহ ভারতের হরিণডাঙ্গা, খাতুয়াঝুঁড়ি ও বাংলাদেশের তালপট্টি দ্বীপ ঘুরে সাতক্ষীরা রেঞ্জ পৌঁছাতে পেরেছে। গত ১০ মে পর্যন্ত ভারতীয় বন বিভাগের ট্রেকিংয়ে থাকা সাড়ে ৪ মাস ধরে ১০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়েছে। ভারতীয় বন বিভাগ বলছে, বাঘটি তাদের ট্রেকিংয়ে না থাকলেও এখনো নিরাপদে আাছে। কারণ ওই বাঘটি মারা গেলে তারা স্যাটালাইট চিপসের মাধ্যম সিগনাল পেতো।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বন বিভাগের প্রধান ওয়াইল্ড লাইফ কর্মকর্তা সেদেশের গণমাধ্যমে বলেছেন, ২৭ ডিসেম্বরে গলায় রেডিও কলার লাগানো বাঘটি ভারতের সুন্দরবনের নয়। তারা এ বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছেন।

বাংলাদেশের সুন্দরবন পশ্চিম বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) আবু নাসের মোহসিন হোসেন বলেছেন, ভারতীয় সুন্দরবনের বশিরহাট রেঞ্জে গত বছরের ২৭ ডিসেম্বরে যে বাঘটির গলায় রেডিও কলার লাগানো হয় সেটি সুন্দরবনের বাংলাদেশ অংশের সাতক্ষীরা রেঞ্জের বাঘ। একটি বাঘের ডোরাকাটা চিহ্নের সাথে অন্য বাঘের ডোরাকাটা চিহ্নের কোনো মিল থাকে না। ২০১৭ সালে ক্যামেরা ট্রেকিং পদ্ধতিতে বাঘ শুমারিকালে এই বাঘটির ছবি সাতক্ষীরা রেঞ্জ থেকে তোলা হয়, যা বন বিভাগের কাছে সংরক্ষিত রয়েছে। সাতক্ষীরা রেঞ্জের নদীর ওপারে ভারতের সুন্দরবন। তাই নদী পেরিয়ে ওপারের সুন্দরবনে গিয়ে বাঘটি নিজ আবাসস্থল সাতক্ষীরা রেঞ্জে ফিরে আসার বিষয়টি ভারতীয় বন বিভাগের মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া গেছে। 

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

 


  

এই বিভাগের আরও খবর