শিরোনাম
৫ ডিসেম্বর, ২০২১ ১৬:২৪

কিশোরগঞ্জে আগুনে পুড়ে অঙ্গার কৃষকের চার গরু

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

কিশোরগঞ্জে আগুনে পুড়ে অঙ্গার কৃষকের চার গরু

কিশোরগঞ্জে গোয়াল ঘরের আগুনে পুড়ে অঙ্গার হয়ে গেছে কৃষকের চারটি গরু। শনিবার রাতে সদর উপজেলার বৌলাই ইউনিয়নের মূল সতাল গ্রামে কৃষক জাহিদুল ইসলামের গোয়াল ঘরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে।  

জাহিদুল ইসলাম জানান, রাত আড়াইটার দিকে হাঁস-মুরগির ডাকে ঘুম ভাগে তার। ঘর থেকে বের হয়ে গোয়াল ঘরে দাউদাউ করে আগুণ জ্বলতে দেখেন তিনি। তখন তার  চিৎকারে এগিয়ে আসে এলাকাবাসী। পরে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় প্রায় দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তিনি আরও বলেন, বাড়ির পাশেই পর্যাপ্ত পরিমাণ পানির ব্যবস্থা থাকায় সহজে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে। 

তিনি জানান, আমরা বেঁচে গেলেও সন্তানের মতো লালন পালন করা গরুগুলোকে বাঁচাতে পারিনি। চোখের সামনেই চারটি গরু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। দুটি ষাঁড়, একটি গাভি ও একটি বাছুর হারিয়ে তিনি এখন অসহায়। প্রায় তিন লক্ষ টাকার অধিক ক্ষতি হয়েছে বলেও জানান তিনি। 

মূল সতাল গ্রামের মাহতাব উদ্দিন জানান, গরুগুলোই ছিল কৃষক জাহিদুলের একমাত্র অবলম্বন। এই গরুগুলোকে তিনি সন্তানের মতোই লালন পালন করে বড় করেছেন। সামনের কোরবানি ঈদে ষাঁড়গুলো বিক্রি করার কথা ছিল। এজন্য লালন পালনে বাড়তি খরচও করেছেন তিনি। কিন্তু এর আগেই আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেল গরুগুলো। তিনি আরও বলেন, আমরা যারা দেখতে এসেছি তাদেরই খারাপ লাগছে। কষ্টও লাগছে।

মশা তাড়ানোর জন্য গোয়াল ঘরে রাখা কয়েলের আগুন থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত বলে জানা গেছে। আগুন লাগার খবর পেয়ে রবিবার সকালে বৌলাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আওলাদ হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর