৩ জুলাই, ২০২২ ২১:৪৬

৩০ লাখ টাকা ‘ভুয়া কাবিন’ করে স্বামী দাবি, কারাগারে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান

রাজবাড়ী প্রতিনিধি

৩০ লাখ টাকা ‘ভুয়া কাবিন’ করে স্বামী দাবি, কারাগারে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান

৩০ লাখ টাকা ‘ভুয়া কাবিন’ নামা তৈরি করে সুমন মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে স্বামী হিসাবে দাবি করার অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় কারাগারে যেতে হয়েছে রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলেয়া খাতুনকে। এ সময় ভুয়া কাবিননামায় দুইজন স্বাক্ষীর জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে তাদেরকে কারাগারে প্রেরণ করেন রাজবাড়ীর আদালত।

আজ রবিবার দুপুরে তাদের জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে আদালতে প্রেরণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাদী পক্ষের আইনজীবী নিজাম উদ্দীন হায়দার। তিনি বলেন, রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের সূর্যনগর গ্রামের মো. সুমন মিয়াকে রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলেয়া খাতুন স্বামী হিসাবে দাবি করেন। এর বিরুদ্ধে সুমন মিয়া রাজবাড়ীর-১ নং আমলী আদালতে ৩০ লাখ টাকার ভুয়া কাবিন নামা সৃষ্টি করেছেন বলে মামলা দায়ের করেন। দুপুরে আলেয়া ও তার দুইজন স্বাক্ষী আদালতে জামিন আবেদন করলে আদালতের বিচারক তাদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশনা প্রদান করেন।

রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. ইমদাদুল হক বিশ্বাস বলেন, প্রতারণার অভিযোগে দায়েরকৃত এক মামলায় আমাদের পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলেয়া বেগমকে বিজ্ঞ আদালত কারাগারে পাঠানোর নির্দেশনা দিয়েছেন।

আলেয়া বেগমের ছেলে সবুজ বলেন, আমার আম্মুকে পারিবারিক একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিজ্ঞ আদালত কারাগারে প্রেরণ করেছেন। এর বেশি কিছু আমি বলতে পারবো না।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর