২৬ আগস্ট, ২০২২ ২২:১৬

বাগেরহাটে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে হামলা, আহত ৩৫

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে হামলা, আহত ৩৫

বাগেরহাট শহরে শুক্রবার বিকালে শহর বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের হামলায় বিএনপির সাবেক এমপি শেখ মুজিবর রহমানসহ বিএনপির ৩৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। এ সময় সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে একজন সাংবাদিকও আহত হয়েছেন। হামলায় ১৫টি মোটরসাইকেলসহ জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ব্যারিষ্টার শেখ জাকির হোসেনের বাড়ী ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। আহত নেতাদের বাগেরহাট শহরের বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে বিএনপি। এ ঘটনার পরপরই শহরে পুলিশি টহল জোরদার করা হযেছে। 

আহত বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে সাবেক এমপি শেখ মুজিবর রহমান, ফকিরহাটের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক শেখ কামরুল ইসলাম গোরা, ডেমা ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শেখ আফজাল হোসেন, জেলা যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এসকে বদরুল আলম, শরণখোলা উপজেলা শ্রমিক দলের সভাপতি ফিরোজ তালুকদার, খোপন্তাকাটা ইউনিয়ন শ্রমিকদলের সভাপতি ফকের গাজী, সাধারণ সম্পাদক বাচ্চু আকন, বাশতলী ইউনিয়ন বিএনপির সহসভাপতি শেখ ফিরোজ কবির, সদর থানা যুবলদ নেতা ইয়াছিন মোল্লা বাবু, যুবদল কর্মী রাজু, স্বেচ্ছাসেবক দল কর্মী মিজান, হোসেন আলী, ছাত্রদল কর্মী মো. আলী তুহিন ও সাংবাদিক মো. কামরুজ্জামান শিমুলকে শহরের বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। অন্যদের বিভিন্ন ইউনিয়ন ও উপজেলা ক্লিনিকে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানিয়েছে বিএনপি। 

বাগেরহাট জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি এম এ সালাম জানান, কেন্দ্র ঘোষিত বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ কর্মসূচি শুক্রবার বিকালে শহরের পুরাতন বাজার মোড়ে শুরু হয়। এ সময়ে প্রথমে পুলিশ এসে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে বাধা দিয়ে মাইক কেড়ে নেয়। এর পরপরই পুরাতন বাজারে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের হামলা হামলা চালায়। পুরাতন বাজারে হামলায় সাবেক এমপি শেখ মুজিবর রহমান, ফকিরহাটের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যার ও জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক শেখ কামরুল ইসলাম গোরাসহ ৫ জন আহত হয়।

এরপর একঘন্টা ধরে কলেজ রোড়. সম্মিলনী স্কুল মোড়, পিসি কলেজ, মেডিকেল স্কুল সড়ক. নূর মসজিদ রোড, এলজিডি মোডে বিএনপি নেতাকর্মীদের উপর হামল চালায় আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। সর্বশেষ সোনাতলা এলাকায় জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ব্যারিষ্টার শেখ জাকির হোসেনের বাড়ীর জালানা-দরজা, চেয়ার টেবিলসহ আসবাবপত্র ভাংচুর করে গুড়িয়ে দেয়া হয়। এসব হামলায় সাবেক এমপি শেখ মুজিবর রহমান, ফকিরহাটের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যার ও জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক শেখ কামরুল ইসলাম গোরাসহ বিএনপির অন্তত ৩৫ নেতাকর্মী আহত ও তাদের ব্যবহৃত ১৫টি মটরসাইকেল ভাংচুর করা হয়। আহত এসব বিএনপি নেতাকর্মীদের বাগেরহাট শহরসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন ও উপজেলার ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।   

এবিষয়ে বাগেরহাট পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইবনে মিজান হিরু জানান, দীর্ঘদিন ধরে বাগেরহাট বিএনপিতে বিবাদমান দুটি গ্রুপ রয়েছে। তাদের দুই গ্রুপের মধ্যে হামলার ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে হামলার ঘটনার সাথে তার দলের কোন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী জড়িত নয় বলে দাবী করেন পৌর আওয়ামী লীগের এই নেতা।

বিডি প্রতিদিন/এএ

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর