৪ অক্টোবর, ২০২২ ১৮:১৩

অন্তঃসত্ত্বা ভাবিকে পিটিয়ে হত্যা, ২৭ বছর পর ননদ গ্রেফতার

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

অন্তঃসত্ত্বা ভাবিকে পিটিয়ে হত্যা, ২৭ বছর পর ননদ গ্রেফতার

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ মনোয়ারা বেগমকে পিটিয়ে হত্যার ২৭ বছর পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ননদ মোছা. শামসুন্নাহারকে (৫০) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪।

শামসুন্নাহার জেলার ফুলবাড়িয়া উপজেলার হুরবাড়ি গ্রামের জোবেদ আলীর মেয়ে।

মঙ্গলবার দুপুরে র‌্যাব-১৪ এর কার্যালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তি থেকে এসব তথ্য জানানো হয়।

এর আগে সোমবার দিবাগত রাতে রাজধানীর পল্লবী থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

বিষয়টি নিশ্চিত করে র‌্যাব-১৪’র এএসপি বেলায়েত হোসেন জানান, হুরবাড়ি গ্রামের জোবেদ আলীর ছেলে মো. আব্দুল আউয়ালের সাথে মনোয়ারা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকে যৌতুকের জন্য মনোয়ারা বেগমকে নির্যাতন শুরু করেন। 

তিনি আরও জানান, ঘটনার দিন ১৯৯৪ সালের ১১ ডিসেম্বর রাত ৯টার দিকে ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা মনোয়ারা বেগমকে স্বামী আব্দুল আউয়াল, তার দুই বোন শামসুন্নাহার ও হাফেজা খাতুন এবং তাদের ভাতিজা সাইফুল ইসলাম লাঠি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে। হত্যার পর ঘটনা ধামাচাপা দিতে মনোয়ারা বেগমের মুখে বিষ দিয়ে আত্মহত্যা বলে প্রচার চালায়। পরে নিহতের ভাই শহিদুল্লাহ একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় পরবর্তীতে সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আদালত আসামি শামসুন্নাহারসহ এজাহারনামীয় সকল আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেন। 

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

সর্বশেষ খবর