শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ২৩:১২

তৃতীয় দিনে শাস্ত্রীয় সংগীত আসর

শোবিজ প্রতিবেদক

তৃতীয় দিনে শাস্ত্রীয় সংগীত আসর

গত দুদিন ধরে শহর মেতে উঠেছে এক অনন্য সাজে। পৌষের কনকনে ঠাণ্ডার সঙ্গে আন্তর্জাতিক মানের সুমধুর রাগ-রাগিনীর সুরে গত কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় আবারও শহর জেগেছে সংগীত উৎসবে। সংগীত আস্বাদনের চিত্রটার পরিবর্তন ঘটেছে। উৎসবমুখর মানুষের সংগীত শ্রবণ করার অভিজ্ঞতাতে এসেছে পরিবর্তন। রাতভর নির্ঘুম থেকে সংগীতপিপাসুরা দলবেঁধে উপভোগ করছে সংগীতসুধা। বেঙ্গল ফাউন্ডেশন আয়োজিত পাঁচদিনের উচ্চাঙ্গ সংগীত উৎসব ষষ্ঠবারের মতো শুরু হয় ২৬ ডিসেম্বর থেকে। বরাবরের মতো দেশ-বিদেশের অনেক গুণী সংগীতজ্ঞ ও নৃত্য দলগুলোর অংশগ্রহণ উৎসবকে দিয়েছে এক আলাদা মাত্রা। এবার উপমহাদেশের শাস্ত্রীয় সংগীতই নয়, এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ওয়েস্টার্ন ক্লাসিক্যাল।

আজ বিশ্বের উচ্চাঙ্গ সংগীত আসরের তৃতীয় দিন। গত দুদিনের মতো একই সময়ে আজকের আসর শুরু হবে। বেঙ্গল পরম্পরা সংগীতালয়ের শিক্ষার্থীদের সেতার পরিবেশনার মধ্য দিয়ে উৎসবের এই দিন শুরু হবে। তাদের পরিবেশনা শেষে মঞ্চে ঘাটম ও কঞ্জিরা পরিবেশনা নিয়ে হাজির হবেন বিদ্বান ভিক্ষু বিনায়ক রাম ও সেলভা গণেশ বিনায়ক রাম। এই আসরে প্রথমবারের মতো সরকারি সংগীত কলেজ খেয়াল পরিবেশনায় অংশ নেবে। তাদের পরিবেশনা শেষ হলে আসর জমাতে আসবেন আবির হোসেন। তিনি সরোদ পরিবেশন করবেন। এরপর গাজী আবদুল হাকিমের বাঁশির সুমধুর সুরে ধানমন্ডির আবাহনী প্রাঙ্গণ আজ মেতে উঠবে। ধ্রুপদ সংগীতের আয়োজন নিয়ে এরপর মঞ্চে আসবেন প্রখ্যাত ধ্রুপদ সংগীতজ্ঞ পণ্ডিত উদয় ভাওয়ালকর। তৃতীয় দিনের এই উৎসব আয়োজনে বেহালার মায়াময় সুরে মুগ্ধ করতে মঞ্চে আসবেন বিদূষী কালা রামনাথ। রাতের শেষ আয়োজন খেয়াল নিয়ে শাস্ত্রীয় সংগীতের আসরে হাজির হবেন প্রখ্যাত খেয়াল ঘরানার শিল্পী পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী।

সংগীত উপভোগের পাশাপাশি খাবার ও পানীয়ের জন্য উৎসব প্রাঙ্গণে রয়েছে ফুডকোট। সাংবাদিকদের জন্য আছে ওয়াই-ফাই জোন। বেঙ্গল উচ্চাঙ্গ সংগীত উৎসব ২০১৭-এর নিবেদক স্কয়ার গ্রুপ। আয়োজন সমর্থন করছে ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড। ইভেন্ট ব্যবস্থাপনায় ব্লুজ কমিউনিকেশনস।

উৎসবের সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছে পারফেক্ট হারমনি, সিঙ্গাপুর। সম্প্রচার সহযোগী হিসেবে থাকছে চ্যানেল আই। উৎসব চলবে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত। 


আপনার মন্তব্য