Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ জুন, ২০১৯ ১৩:২৬
আপডেট : ২৭ জুন, ২০১৯ ১৩:৫১

আমি দুঃখিত, ক্ষমাপ্রার্থী!

আবুল হাসনাত মিল্টন

আমি দুঃখিত, ক্ষমাপ্রার্থী!

আমার ভুল হয়ে গেছে। আমি সকালে উঠে ঘুম জড়ানো চোখে সবকিছু বুঝে ওঠার আগে ভুল করে বরগুনার নৃশংস (পড়ুন সামান্য মারামারি) হত্যাকাণ্ডের খুনিদের ক্রসফায়ার চেয়ে অন্যায় করে ফেলেছি। আমি আসলে খুনিদের আসল পরিচয় জানতাম না বলেই এহেন ভোদাইয়ের মত কাজ করে ফেলেছি।

খুনিদের একজন নয়ন বন্ড, জেমস বন্ডের খালাতো ভাই। আরেকজন হল রিফাত ফরাজী। এই রিফাতের শখ হল মানুষ কোপানো। কয়েক বছর আগে থেকেই সে নিয়মিত মানুষ কোপায়। ২০১৭ সালের জুলাই মাসেও সে এক মাসুম যুবককে কোপাইছিল। কিচ্ছু হয় নাই।

কয়দিন আগে বরগুনায় হাসপাতালে একজন ডাক্তারকে বেদম পেটানো হলো। আমরা বিচার পাবো কী, উল্টো এই রিফাত ফরাজীর নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরাই ডাক্তারের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করলো। যেহেতু ডাক্তারদের বিরূদ্ধে আন্দোলন, সবাই করতালি দিয়ে তাদের অভিনন্দন জানালো।

একের পর অন্যায় করে পার পেয়ে যাওয়া রিফাত ফরাজী ক্রমশ বেপোরোয়া হয়ে উঠেছে। গতকাল প্রকাশ্যে সে রামদা দিয়ে বীরদর্পে মানুষ কুপিয়ে হত্যা করেছে। এমন বীভৎস সে দৃশ্য যে, ভিডিওটা দেখা যায় না। মরে যাওয়া বৃক্ষকেও মানুষ এমন নির্মমভাবে কোপায় না।

কেন সে এমন ঔদ্ধত্য দেখাবে না? সে কী আমাদের মত বো..চো...আমজনতা? সে হল বরগুনার সাবেক এমপি ও বর্তমান জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. দেলোয়ার হোসেনের ভায়রা দুলাল ফরাজীর পুত্র।(Facebook ID of Rifat - https://www.facebook.com/rifat.forazi.5)

এমন প্রভাবশালী পরিবারের বীর সন্ত্রাসী পোলার বিচার চেয়ে কি নিজের কপাল পোড়াবো? তার চেয়ে আসুন আমরা আজ আমাদের এক ডাক্তার নেতার জন্মদিন পালন করি। 

শুভ জন্মদিন, লিডার। চিয়ার্স!

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

বিডি-প্রতিদিন/২৭ জুন, ২০১৯/মাহবুব


আপনার মন্তব্য