শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৯ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ মে, ২০২১ ২৩:৩৮

দুর্নীতি অনিয়মে দেশ ছেয়ে গেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক

দুর্নীতি অনিয়মে দেশ ছেয়ে গেছে
Google News

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এ সরকারের পতন একদিন হবেই। দুর্নীতি, লুটপাট, অনিয়মে দেশ ছেয়ে গেছে। সরকারের লোকেরা যে যেভাবে পারছে লুটপাট করছে। গতকাল গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এবং ঠাকুরগাঁওয়ে নিজের বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমানে আমরা যেন হীরক রাজার দেশে বাস করছি। যারা এসব অন্যায়ের প্রতিবাদ করছে তারা নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। দেশে মানুষের কোনো অধিকার নেই। এটা কোনো স্বাধীন রাষ্ট্র হতে পারে না। তিনি বলেন, দেশে মানুষের কোনো অধিকার নেই। না আছে কথা বলার অধিকার, না আছে সাংবাদিকদের অধিকার। এটাকে গণতন্ত্র বলে না। আজকে সাংবাদিকদের যেভাবে হেনস্তা করা হচ্ছে, এটা কোনো স্বাধীন রাষ্ট্রে হতে পারে না। তিনি বলেন, দেশ থেকে প্রায় ৫০ জন সাংবাদিক পালিয়ে গেছেন। সাগর-রুনি হত্যা মামলার আজ পর্যন্ত কোনো সুরাহা করতে পারেনি এ সরকার।

ঠাকুরগাঁওয়ের অনুষ্ঠানে জেলা বিএনপি সভাপতি তৈমুর রহমান, সহসভাপতি আল মামুন আলম, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক পয়গাম আলী, আনসারুল হকসহ বিএনপির বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সাংবাদিক রোজিনার ঘটনা সম্পর্কে যা বললেন : বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, সাংবাদিক রোজিনার ক্ষেত্রে যা ঘটেছে সেটি তুচ্ছ বা বিচ্ছিন্ন কোনো ঘটনা নয়, কর্তৃত্ববাদী শাসনে সাংবাদিক নির্যাতন এবং সরকারের সীমাহীন দুর্নীতির সংবাদ প্রচারে অব্যাহত প্রতিবন্ধকতার একটি উদাহরণ। সরকারের এসব দুর্নীতি-লুটপাট ও স্বেচ্ছাচারিতার সংবাদ যাতে কেউ প্রকাশ না করতে পারে, রোজিনার এ ঘটনার মাধ্যমে তাদের ভয় দেখানো হলো। এ ঘটনায় তিনি স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও স্বাস্থ্য সচিবের পদত্যাগ দাবি করেন। বিএনপি মহাসচিব বলেন, সরকার ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের করোনা এবং নিয়োগ সংক্রান্ত দুর্নীতির অনেক তথ্য তুলে ধরেছেন রোজিনা ইসলাম। এর মাধ্যমে জনগণ সেসব জানতে পেরেছে। রোজিনার মতো এত বড় একজন পেশাদার সাংবাদিকের সঙ্গে এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা আমরা চিন্তাও করতে পারি না। অবিলম্বে সব মামলা প্রত্যাহার করে রোজিনাকে মুক্তি দিন।

এই বিভাগের আরও খবর