শিরোনাম
মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০২২ ০০:০০ টা

যুক্তরাজ্যে মাঙ্কিপক্স সিলেটে সতর্কতা

শাহ্ দিদার আলম নবেল, সিলেট

উত্তর আমেরিকা ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়েছে ভাইরাসজনিত বিরল রোগ মাঙ্কিপক্স। বিশেষ করে যুক্তরাজ্যে এ রোগ ছড়িয়ে পড়ায় সিলেটের মানুষের মধ্যে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। যুক্তরাজ্যে থাকা স্বজনদের নিয়ে সিলেটে থাকা মানুষের উদ্বেগ বাড়ছে। একই সঙ্গে যুক্তরাজ্য-ফেরত প্রবাসীদের মাধ্যমে সিলেটে ভাইরাসজনিত এ রোগ যাতে ছড়াতে না পারে সে জন্য নেওয়া হয়েছে বিশেষ সতর্কতা। ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জোরদার করা হয়েছে ‘হেলথ স্ক্রিনিং’। প্রস্তুত রাখা হয়েছে আইসোলেশন সেন্টার।

সিলেটের স্থলবন্দরগুলোতেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসায় পরিবার নিয়ে যুক্তরাজ্য প্রবাসীদের দেশে ফেরা বেড়েছে। প্রতিদিনই শতাধিক প্রবাসী লন্ডন-সিলেট আসা-যাওয়া করছেন। তাই যুক্তরাজ্যে মাঙ্কিপক্স ছড়িয়ে পড়ার খবরে সিলেটের মানুষের মধ্যে উদ্বেগ বেড়েছে। সিলেটে থাকা প্রবাসী পরিবারের সদস্যরা যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত স্বজনদের জন্য দুশ্চিন্তায় ভুগছেন। অন্যদিকে যুক্তরাজ্য-ফেরত প্রবাসীদের মাধ্যমে ভাইরাসজনিত এ রোগ সিলেটে ছড়িয়ে পড়ে কি না এ নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যেও চাপা আতঙ্ক বিরাজ করছে। এ অবস্থায় ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিশেষ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। সিলেটের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. জন্মেজয় দত্ত জানান, ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে আসা প্রবাসীদের বেশির ভাগই যুক্তরাজ্যের। তাই যুক্তরাজ্যে মাঙ্কিপক্সের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ায় স্বাস্থ্য অধিদফতরের নির্দেশে ওসমানী বিমানবন্দরে সতর্কাবস্থা জারি করা হয়েছে। চার সদস্যের মেডিকেল টিম সেখানে কাজ করছে। লন্ডন থেকে আসা ফ্লাইট ওসমানীতে অবতরণের আধা ঘণ্টা আগ থেকেই মেডিকেল টিমের সদস্যরা সতর্ক অবস্থায় থাকেন। হেলথ স্ক্রিনিংয়ের পর যাত্রীদের বিমানবন্দর ত্যাগের অনুমতি দেওয়া হয়। ডা. জন্মেজয় দত্ত আরও জানান, কোনো রোগীর শরীরে মাঙ্কিপক্সের উপসর্গ দৃশ্যমান হলে তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে। অবস্থাদৃষ্টে আক্রান্ত মনে হলে ওই যাত্রীকে সিলেট সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হবে। মাঙ্কিপক্সের চিকিৎসার জন্য ২০ শয্যার সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালকে আইসোলেশন সেন্টার হিসেবে প্রস্তুত রাখা হয়েছে জানিয়ে ডা. জন্মেজয় বলেন, ‘করোনা আক্রান্ত রোগীদের আইসিইউ ও অক্সিজেন সাপোর্টের প্রয়োজন হতো। তাই তাদের সব হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখা যেত না। কিন্তু মাঙ্কিপক্সের রোগীদের এ রকম সাপোর্টের প্রয়োজন না হওয়ায় তাদের জন্য আইসোলেশন সেন্টার হিসেবে সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালকে নির্ধারণ করা হয়েছে। ওসমানী বিমানবন্দরে বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের হেলথ স্ক্রিনিং করা হলেও প্রতিবেশী দেশ ভারতে মাঙ্কিপক্স আক্রান্ত শনাক্ত না হওয়ায় স্থলবন্দরগুলোতে এ রকম কোনো সতর্কতা এখনো জারি করা হয়নি বলে জানান ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. জন্মেজয়। এদিকে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সিলেট বিভাগীয় পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় জানিয়েছেন, করোনার মতো মাঙ্কিপক্স ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা নেই। তবে যুক্তরাজ্যে সংক্রমণ ছড়ানোর কারণে সিলেটের জন্য দুশ্চিন্তা তৈরি হয়েছে। রবিবার স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে সারা দেশের বিমানবন্দর ও স্থলবন্দরে সতর্কতা জারির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই নির্দেশনার আলোকে ওসমানী বিমানবন্দরে  ইতোমধ্যে হেলথ স্ক্রিনিং শুরু হয়েছে। ভারতে এখনো মাঙ্কিপক্স শনাক্ত না হলেও সিলেটের তামাবিল ও শেওলা স্থলবন্দরে সংশ্লিষ্টদের সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় স্ক্রিনিং ব্যবস্থা কিছুটা শিথিল হয়েছিল, মাঙ্কিপক্সের কারণে তা আবার জোরদারে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. জন্মেজয় দত্ত জানিয়েছেন, মাঙ্কিপক্স ভাইরাসে আক্রান্ত হলে প্রাথমিক উপসর্গ জ্বর, মাথাব্যথা, হাড়ের জোড়া ও মাংসপেশিতে ব্যথা এবং অবসাদ দেখা দেবে। জ্বর শুরু হওয়ার পর দেহে গুটি বা ফুসকুড়ি দেখা দেবে। এসব গুটি শুরুতে দেখা দেয় মুখে। পরে তা ছড়িয়ে পড়ে হাত ও পায়ের পাতাসহ দেহের অন্যান্য জায়গায়। এই গুটির জন্য রোগীর দেহে খুব চুলকানি হয়। পরে গুটি থেকে ক্ষত দেখা দেয়।

সর্বশেষ খবর