শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৬ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ জুন, ২০২১ ২৩:৩৯

উহানের সেই ল্যাবে জ্যান্ত বাদুড় ছিল? নতুন ভিডিওয় তোলপাড়, প্রশ্নে হু

উহানের সেই ল্যাবে জ্যান্ত বাদুড় ছিল? নতুন ভিডিওয় তোলপাড়, প্রশ্নে হু
Google News

করোনাভাইরাসের উৎস নিয়ে চীনকে আড়াল করার অভিযোগ আগেই উঠেছে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার (হু) বিরুদ্ধে। কিন্তু এবার তাদের বিরুদ্ধে রীতিমতো মিথ্যাচারের অভিযোগ উঠছে। আর এ অভিযোগের কারণ একটি ভিডিও। যাতে দেখা গেছে, উহানের গবেষণাগারে একঝাঁক জ্যান্ত বাদুড় খাঁচায় ভরে রাখা হয়েছে। তাদের শরীর থেকে নানা ভাইরাস নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছেন গবেষকরা। অথচ এর আগে হু জানিয়েছিল, উহানের গবেষণাগারে জ্যান্ত বাদুড় নিয়ে কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়নি। তাতেই নতুন করে প্রশ্নের মুখে হুর ভূমিকা। করোনার উৎস নিয়ে এখন পর্যন্ত নিশ্চিত কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছতে পারেননি গবেষকরা। তবে বাদুড়ের শরীরে ইতিমধ্যে এ সার্স কভিড ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। সেখান থেকেই মানুষের শরীরে এ ভাইরাস প্রবেশ করেছে বলে মত গবেষকদের একটা বড় অংশের। তাঁদের মতে, জ্যান্ত বাদুড় নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে গিয়ে উহানের ওই গবেষণাগার থেকেই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা যথেষ্ট জোরালো। সে নিয়ে একাধিকবার চীনকে কাঠগড়ায় তুলেছে আমেরিকাসহ বহু দেশ। কিন্তু বেজিংয়ের তরফে বরাবরই তা অস্বীকার করা হয়েছে। তার মধ্যেই সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার ‘স্কাইনিউজ’-এ কয়েক বছর আগের একটি ভিডিও সামনে আনা হয়েছে। ২০১৭ সালের মে মাসে উহানের ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজির গবেষণাগারে চারস্তরীয় জৈব নিরাপত্তা বলয় তৈরি করা হয়। চীনের অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সেস ভিডিওটি প্রকাশ করে, যাতে দেখা যায় খাঁচায় ভরে রাখা হয়েছে একঝাঁক জ্যান্ত বাদুড়। পা থেকে মাথা পর্যন্ত ঢাকা বিশেষ পোশাক পরে বাদুড়গুলোকে চিমটি দিয়ে পোকা খাওয়াচ্ছেন গবেষকরা। একজনের টুপিতে ঝুলে রয়েছে একটি বাদুড়। নিরাপত্তা মেনে কীভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হয় তা ভিডিওয় তুলে ধরা হয়।