Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:৫১

ধর্ষণ থামছেই না

এবার রামপালে শিশু ধর্ষণে অধ্যক্ষ গ্রেফতার

প্রতিদিন ডেস্ক

ধর্ষণ থামছেই না

ধর্ষণ থামছেই না। যৌনবিকৃত ধর্ষকের উন্মত্ততা যেমন বাড়ছে তেমনি একেক ঘটনা ফাঁস হচ্ছে। অপরাধীরাও গ্রেফতার হচ্ছে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আরও ধর্ষণ ও ধর্ষণ চেষ্টার খবর পাওয়া গেছে। সামাজিক প্রতিবাদ এবং ধর্ষকদের গ্রেফতার শুরু হলেও থামানো যাচ্ছে না এ পৈশাচিকতা। এ বিষয়ে আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো আরও কয়েকটি বিবরণÑ

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) : মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার সিন্দুরখান ইউনিয়নে ষষ্ঠ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় শিশুটির পিতা বাদী হয়ে গত শুক্রবার রাতে থানায় মামলা করেছেন। এজাহার  থেকে জানা গেছে, ওই শিশুটির পিতা রাতে চা বাগানে নাইটগার্ড ও দিনে দিনমজুরের কাজ করেন। তার মেয়ে উপজেলার একটি বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। গত মঙ্গলবার একই ইউনিয়নের বেলতলী গ্রামের মতলিব মিয়ার ছেলে মুন্না মিয়া তার মেয়েকে ঘরে একা পেয়ে ধর্ষণ করে। বিকালে তিনি কাজ থেকে বাড়ি ফিরে দেখেন মেয়ে কান্নাকাটি করছে। তিনি এর কারণ জানতে চাইলে মেয়েটি তাকে সব খুলে বলে। পড়ে তিনি মেয়েকে নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকের পরামর্শে তিনি মেয়েকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান। বর্তমানে মেয়েটি ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। থানার ওসি (তদন্ত) সোহেল রানা জানান, ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। অপরাধীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

রাজশাহী : রাজশাহীতে কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মাহফুজুর রহমান নামে এক ব্যক্তিকে এলাকাবাসীর সহায়তায় আটক করে পুলিশে দিয়েছেন স্ত্রী। গত শুক্রবার রাতে তাকে আটক করা হয়। নগরীর রাজপাড়া থানার লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া এলাকা থেকে আটক মাহফুজুর পেশায় রিকশাচালক। রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান জানান, মাহফুজুর তার নিজ বাড়িতে এক কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করেন। ঘটনাটি তার স্ত্রী দেখে স্থানীয় লোকজনকে জানান। এরপর মাহফুজুর পালানোর চেষ্টা করলে স্ত্রীর সহযোগিতায় স্থানীয় লোকজন তাকে আটক করে পিটুনি দিয়ে পুলিশে দেয়।

নগরীর ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নূরুজ্জামান টুকু জানান, ওই কিশোরী দীর্ঘদিন ধরে তার বাড়িতে থাকছে। এর আগেও মাহফুজুর মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। কিন্তু লজ্জায় পরিবারের লোকজন বিষয়টি প্রকাশ করেনি। শুক্রবার সন্ধ্যার পর ফের ধর্ষণের চেষ্টা করলে তার স্ত্রী স্থানীয় লোকজনকে খবর দেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জের ইসলামপুরে তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা ও গ্রাম্য শালিসে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার অভিযোগে এক ইউপি সদস্যসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছেনÑ সদর উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের তেররশিয়া গ্রামের ঘটনার হোতা মৃত নইমুদ্দিনের ছেলে আবদুস সালাম (৩০), একই এলাকার মৃত গোলাম মোস্তফার ছেলে ও গ্রাম্য শালিসদার নাসির উদ্দিন (৩৫), ইউপি সদস্য রেজাউল হক ও মো. তুফানী। গতকাল ভোররাতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে। দুপুরে প্রেসব্রিফিংকালে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ পরিদর্শক বাবুল উদ্দিন সরদার জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের  তেররশিয়া গ্রামের একটি পাটখেতে তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে গত ১৮ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০টায় আবদুস সালাম ধর্ষণের চেষ্টা করলে ছাত্রীর চিৎকারে লোকজন চলে আসেন। তখন ধর্ষণ চেষ্টাকারী পালিয়ে যান। ঘটনাটিকে ধামাচাপা দেওয়ার জন্য গত শুক্রবার গ্রাম্য শালিসের মাধ্যমে নিষ্পত্তি করার চেষ্টা করা হয়। বিষয়টি পুলিশ সুপারের নজরে এলে গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল ইসলামপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে চারজনকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় নবাবগঞ্জ সদর মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বাগেরহাট : রামপাল, ফকিরহাট ও সদর উপজেলায় তিন শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় গত শুক্রবার রাত থেকে অভিযান চালিয়ে পুলিশ এক মাদ্রাসা অধ্যক্ষ ও দুই ধর্ষককে আটক করেছে। আটককৃতদের মধ্যে রয়েছেন বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার সরাফপুর কারামতিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী নিবাসে থাকা তৃতীয় শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের পর আলামত নষ্টে জড়িত অধ্যক্ষ শেখ ওয়ালিউর রহমান, ফকিরহাটের বাহিরদিয়া গ্রামে তিন বছরের এক শিশুর ধর্ষক যুবক আরমান শেখ ও বাগেরহাট শহরের হরিণখানা ৯ বছরের এক শিশুও ধর্ষক তার সৎ পিতা আলমগীর হোসেন। এর আগে শুক্রবার দুপুরে সরাফপুর কারামতিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী নিবাসে থাকা তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীর ধর্ষক মুদি দোকানি ফেরদাউস মোল্লাকেও পুলিশ আটক করে। আটক মাদ্রাসা অধ্যক্ষ ও তিন ধর্ষককে গতকাল দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

রাজবাড়ী : রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে টাকার লোভ দেখিয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গতকাল সকালে পুলিশ চিত্ত প্রামাণিক ওরফে চিত্ত রঞ্জনকে (৪৫) গ্রেফতার করেছে। স্থানীয়রা জানান, বালিকায়ান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের সোনাইকুড়ি গ্রামের মৃত জগনাথ প্রামাণিকের ছেলে চিত্ত প্রামাণিক ওরফে চিত্ত রঞ্জন স্কুলছাত্রীকে বিভিন্ন সময় টাকার লোভ দেখিয়ে শরীরিক সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টা করছিল। দশ দিন আগে বাড়ির দক্ষিণ পাশে মেহগনি বাগানের মধ্যে ডেকে নিয়ে তিনি ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করেন। বিষয়টি কাউকে বললে তাকে ‘মেরে ফেলা হবে’ এমন ভয় দেখালে স্কুলছাত্রী বিষয়টি কাউকে জানাতে সাহস পায়নি। পরবর্তীতে ওই লম্পট পুনরায় ধর্ষণের চেষ্টা করে। একপর্যায়ে ছাত্রীটি তার বাবা-মাকে বিষয়টি জানায়।

 

ওই ছাত্রীর পিতা জানান, ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া তার মেয়েকে কুপ্রস্তাব দেওয়াসহ ধর্ষণের বিষয়টি জানার পর তিনি বালিয়াকান্দি থানায় মামলা দায়ের করেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর