Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২২ জুন, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ জুন, ২০১৯ ২৩:১৬

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে স্বেচ্ছাসেবক দলের মিছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে স্বেচ্ছাসেবক দলের মিছিল

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা-কর্মীরা। গতকাল দুপুরে মিছিলটি নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। এতে নেতৃত্ব দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। এ সময় খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন নেতা-কর্মীরা। মিছিলে অংশ  নেন স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভূঁঁইয়া জুয়েল, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াছিন আলী, সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সাদরেজ জামান, ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি ফখরুল ইসলাম রবিন, দক্ষিণের সভাপতি এস এম জিলানী, সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, উত্তরের সাধারণ সম্পাদক গাজী রেজওয়ান হোসেন রিয়াজ, দক্ষিণের সিনিয়র সহ-সভাপতি রফিক হাওলাদার প্রমুখ। মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রুহুল কবির রিজভী বলেন, খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় অন্যায় সাজা দিয়ে বর্তমান সরকার অতিমাত্রায় বেপরোয়া ও নিষ্ঠুর হয়ে উঠেছে। বর্তমান অবৈধ শাসকগোষ্ঠী জনগণকে ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কব্জায় নিয়ে দেশ পরিচালনা করছে। ঝরনার সঙ্গে নদীর যেমন সম্পর্ক, নদীর সঙ্গে সমুদ্রের, মেঘের সঙ্গে বৃষ্টির তেমনিভাবে গণতন্ত্রের সঙ্গে খালেদা জিয়ার সম্পর্ক অবিচ্ছেদ্য ও অবিভাজ্য। সুতরাং গণতন্ত্রের নেত্রীকে বন্দী করে প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকার স্বপ্ন পূরণ হবে না।

তিনি আরও বলেন, সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসনের কবলে পড়ে দেশজুড়ে গুম-খুন, বিচারবহির্ভূত হত্যা, ধর্ষণ, ব্যভীচার এখন বেড়েছে। দুঃশাসনের কবলে নারী ও শিশুদের ওপর নির্যাতনের মাত্রা এখন প্রকট হয়ে উঠেছে। চারদিকে লুটপাট ও সমাজের সর্বত্র বিশৃঙ্খলার রমরমা রাজত্ব বিরাজমান। আইনের শাসন না থাকায় মানুষ ন্যায়বিচার পাচ্ছে না।  সরকারকে উদ্দেশ্য করে রিজভী বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তি দিন। তার জামিনে বাধা প্রদান করবেন না। তাকে তার পছন্দ অনুযায়ী বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসার সুযোগ দিতে হবে।


আপনার মন্তব্য