শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ আগস্ট, ২০১৯ ২২:৪২

মাদক ব্যবসায় বাধায় সংঘর্ষ গুলি, নিহত ২

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে মাদক ব্যবসায় বাধা দেওয়ায় গতকাল মাদক ব্যবসায়ী ও তার লোকজনের হামলা ও গুলিতে দুজন নিহত ও অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন-মাইজচর গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে  শরীফ (৩৫) ও তার চাচাত ভাই রাফাতুল্লাহর ছেলে ফুরকান (৩২)। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মাইজচর শ্যামপুর গ্রামের ফারুক দীর্ঘদিন যাবত ইয়াবার ব্যবসা, গরু চুরিসহ নানা অপরাধের সঙ্গে জড়িত। ইতিপূর্বে ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে গ্রেফতারও হয়েছিল। ফারুকের মাদক ব্যবসায় বাধা দিচ্ছিলেন মাইজচর ইউনিয়ন পরিষদের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার আবু বকর। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। গতকাল সকাল ৯ টার দিকে আবু বকরের এক ভাই ধান কিনতে বের হন। তিনি ফারুকের বাড়ির সামনে দিয়ে যাবার সময় ফারুক ও তার লোকজন তাকে মারপিট করে। এ খবর পেয়ে বেলা ১১টার দিকে আবু বকর মেম্বার ও তার লোকজন শ্যামপুর এলাকায় গেলে ফারুক ও তার লোকজন হামলা ও এলোপাতাড়ি গুলি করে। এতে আবু বকরের ভাই শরীফ ও চাচাত ভাই ফুরকান গুলিবিদ্ধ হয়ে লুটিয়ে পড়েন। তাদেরকে উদ্ধার করে বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন। তাদেরকে বাজিতপুরসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে এ ঘটনায় পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। বাজিতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খলিলুর রহমান পাটোয়ারি জানান, টাকা পয়সার লেনদেন নিয়ে ফারুক ও আবু বকর মেম্বারের মধ্যে বিরোধ ছিল। এ নিয়েই ঘটনাটি ঘটেছে। এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

পরিস্থিতি মোকাবিলায় এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।


আপনার মন্তব্য