শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:১১

পবিত্র আশুরা পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

পবিত্র আশুরা পালিত

ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে গত মঙ্গলবার সারা দেশে পবিত্র আশুরা পালিত হয়েছে। বরাবরের মতো এবারও পুরান ঢাকার হোসনি দালান থেকে বের হয় তাজিয়া মিছিল। এতে অংশ নেয় সব বয়সের নারী-পুরুষ। তাজিয়া মিছিলটি আজিমপুর, নিউমার্কেট হয়ে ধানমন্ডি ২ নম্বর সড়কের লেকপাড়ে গিয়ে শেষ হয়। এখানে ভক্তরা লেকের পাশে নামাজ আদায় ও দোয়া পাঠ করেন। এ মিছিলের মধ্য দিয়ে কারবালার ইতিহাস উপস্থাপন ও শোক প্রকাশ করেন শিয়া সম্প্রদায়ের লোকেরা। পুরো আয়োজন ব্যবস্থাপনায় ছিল হোসনি ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন। এ ছাড়া রাজধানীর বেশ কয়েকটি স্থানে শিয়া সম্প্রদায়ের আয়োজনে শোকমিছিল বের হয়। মিছিলের প্রথম অংশে দুটি কালো গম্বুজ বহন করা হয় হজরত ফাতিমা (রা.)-কে স্মরণ করে। এ ছাড়া লাল, কালো, সবুজসহ নানা রঙের নিশান বহন করেন মিছিলে অংশগ্রহণকারীরা। রাজধানীর মোহাম্মদপুরে শিয়া মসজিদ থেকে আরও একটি তাজিয়া মিছিল বের হয়। বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মিছিলটি তেজগাঁওয়ের ইমামবাড়ায় গিয়ে শেষ হয়। তাজিয়া মিছিল নির্বিঘ্ন করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে নেওয়া হয় কড়া নিরাপত্তাব্যবস্থা। আলোচনা সভা : সপ্তম আন্তর্জাতিক ঐতিহাসিক শাহাদাতে কারবালা মাহফিল ও আলোচনা সভায় বক্তারা বলেছেন, ১০ মহররম মুসলমানদের শিক্ষার অনিমেষ এক পাঠশালার নাম। বর্তমান মুসলিম বিশ্বের জন্য হোসাইনি ত্যাগের কোনো বিকল্প নেই। আওলাদে রসুল (সা.) ইমাম হোসাইন ও তাঁর সঙ্গীরা অন্যায় আর অসত্যের কাছে মাথা নত করেননি। গতকাল বাদ মাগরিব জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে শাহাদাতে কারবালা মাহফিল পরিচালনা পর্ষদ, ঢাকার উদ্যোগে আহলে বায়তে রসুল (সা.) স্মরণে আয়োজিত মাহফিলে বক্তারা এ কথা বলেন।

উপাধ্যক্ষ মুফতি আবুল কাশেম মুহাম্মদ ফজলুল হকের উপস্থাপনায় পিএইচপি ফ্যামিলির চেয়ারম্যান আলহাজ সুফি মোহাম্মদ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন বড় পীর আবদুুল কাদের জিলানি (রহ.)-এর বংশধর শাহ সুফি সৈয়দ আফিফ আবদুল কাদের মনসুর আল-জিলানি আল-কাদেরি আল-বাগদাদি। প্রধান বক্তা ছিলেন ভারতের সৈয়দ মুহাম্মদ আশরাফ আল-আশরাফি আল জিলানি। শাহ আহসানুজ্জামান উদ্বোধনী বক্তব্য দেন।


আপনার মন্তব্য