শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৩ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ মার্চ, ২০২০ ২৩:৫৪

সিলেটের মেয়র আরিফ লড়ছেন

শাহ্ দিদার আলম নবেল, সিলেট

সিলেটের মেয়র আরিফ লড়ছেন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানো ও জনসচেতনতা তৈরিতে মাঠে নেমেছেন সিলেট সিটি করপোরেশনে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। রাস্তায় জীবাণুনাশক ছিটানো, তিন দিনের জন্য বিপণিবিতান বন্ধ রাখা, বিপণিবিতানে আসা ক্রেতাদের হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধোয়ানো ও লিফট ব্যবহার বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। করোনা প্রতিরোধে মেয়রের এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সিলেটের সচেতন মহল। সারা বিশ্বে এখন একটাই আতঙ্ক করোনাভাইরাস। মরণঘাতী এ ভাইরাস ঠেকাতে দাবি উঠেছে সারা দেশ লকডাউনের। কিন্তু এখনো এ ব্যাপারে সরকারি কোনো সিদ্ধান্ত আসেনি। প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেটেও লকডাউনের দাবি উঠেছে বেশ জোরেশোরে। জনদাবির পরিপ্রেক্ষিতে সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে তিন দিন সিলেট নগরীর সব বিপণিবিতান বন্ধ রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন। তার অনুরোধে বৈঠকে বসছেন বিপণিবিতানগুলোর ব্যবসায়ীরা। মেয়র আশাবাদী জনস্বার্থের কথা বিবেচনা করে ব্যবসায়ীরা তিন দিন সব বিপণিবিতান ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখবেন। এ ছাড়া সিলেট নগরীর সব বিপণিবিতান, আবাসিক ও বাণিজ্যিক ভবনের লিফট বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন মেয়র। গতকাল থেকে নগরভবনের লিফটও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে জানান মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের নিরাপত্তায় নগরীর সব বিপণিবিতানের প্রবেশমুখে হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখার নির্দেশও দিয়েছেন মেয়র। মার্কেটে প্রবেশের সময় ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের স্যানিটাইজার দিয়ে হাত জীবাণুমুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। এরপর থেকে সিলেটের কয়েকটি বিপণিবিতানে এ নির্দেশ কার্যকরও করা হয়েছে। জনসচেতনতা তৈরির পাশাপাশি নগরীকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার কাজেও নেমেছেন আরিফুল হক চৌধুরী। এ লক্ষ্যে গত শনিবার রাতে তিনি জীবাণুনাশক মিশ্রিত পানি দিয়ে হযরত শাহজালাল (রহ.) দরগাহ সড়ক ধৌত করেন। একইভাবে সিলেট রেলওয়েস্টেশন, বাসটার্মিনাল, লালাবাজার, রিকাবিবাজার ও কাজিরবাজারসহ ব্যস্ততম কয়েকটি সড়কে জীবাণুনাশক ছিটান। মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, করোনাভাইরাস ঠেকাতে জনসচেতনতার কোনো বিকল্প নেই। সিটি করপোরেশন নগরবাসীকে এ ব্যাপারে সচেতন করার চেষ্টা করছে। পাশাপাশি প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা হিসেবে বিপণিবিতান বন্ধ, লিফলেট ব্যবহারে নিরুৎসাহিতকরণ ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে। তবে সবার সহযোগিতা ছাড়া এ দুঃসময়ে নগরবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর