শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:২৩

লোকমান হত্যা মামলার আসামি বাদ, নৌকার নতুন প্রার্থী আমজাদ

নরসিংদী প্রতিনিধি

নানা জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে সমালোচনার মুখে নরসিংদী পৌর নির্বাচনে প্রার্থী পরিবর্তন করেছে আওয়ামী লীগ। পৌরসভার সাবেক মেয়র  লোকমান হোসেন হত্যা মামলার আসামি আশরাফ হোসেন সরকারের পরিবর্তে শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন বাচ্চুকে দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাক্ষরিত চিঠি ফেসবুকের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে নরসিংদীজুড়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় ওঠে। শহরের বিভিন্ন স্থানে বাজি ও পটকা ফাটানো হয়। এর আগে বুধবার লোকমান হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি আশরাফ হোসেন সরকারকে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন দিয়ে চিঠি প্রদান করা হয়। জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাসহ বর্তমান মেয়র ও নরসিংদী শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি কামরুজ্জামানের সমর্থকরা দলীয় এ সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেননি। তারা ঢাকায় হাই কমান্ডের সঙ্গে লবিং তদবির চালিয়ে যান এবং সাবেক মেয়র লোকমান হোসেন হত্যাকান্ডের এজাহারভুক্ত আসামি দাবি করে শীর্ষ পর্যায়ে আর্জি পেশ করেন। অবশেষে বৃহস্পতিবার রাতে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার নির্দেশে প্রার্থী বদল করে স্থানীয় নির্বাচন কমিশনের কাছে চিঠি প্রেরণ করেন। এতে নতুন প্রার্থী হিসেবে শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন বাচ্চুকে সদর পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। জানা গেছে, আশরাফ হোসেন সরকার নরসিংদী  পৌরসভার সাবেক মেযর লোকমান হোসেন হত্যা মামলার অন্যতম আসামি। আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছেন। এক যুগ ধরে দলে তার কোনো পদ-পদবি নেই। তাকে মনোনয়ন দেওয়ার বিষয়ে জেলা পর্যায় থেকে  কোনো সুপারিশও করা হয়নি। তারপরও পৌর মেয়র পদে মনোনয়ন দেওয়ায় নরসিংদী জেলাজুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালের ১ নভেম্বর তৎকালীন পৌর মেয়র  লোকমান হোসেনকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায়  লোকমানের ছোট ভাই বর্তমান পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুল ওই বছরের ৩ নভেম্বর সাবেক টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী রাজি উদ্দিন রাজুর ছোট ভাই ও আশরাফ সরকারসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।


আপনার মন্তব্য