শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৬ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ মে, ২০২১ ২৩:২৮

ব্যাগ ধরে ছিনতাইকারীর টান, রিকশা থেকে পড়ে নারীর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

রাজধানীর মতিঝিলে ছিনতাইকারীর হ্যাঁচকা টানে রিকশা থেকে ছিটকে পড়ে সুনিতা রানী দাস (৫০) নামে এক নারীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল ভোরে কমলাপুর বিআরটিসি বাস ডিপোর সামনে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, নিহতের গ্রামের বাড়ি টাঙ্গাইলের গোপালপুরে। স্বামী সুজন চন্দ্র দাসের সঙ্গে তিন সন্তান নিয়ে মুগদার ঋষিপাড়ায় থাকতেন। মুগদা বৌদ্ধ মন্দিরে পরিচ্ছন্নকর্মীর কাজ করতেন সুনিতা রানী।

নিহতের ভাগিনা সুজিত দাস জানান, মঙ্গলবার খালা সুনিতা রানী তার ডেমরার বাসায় যান। সেখান থেকে গতকাল ভোরে রিকশায় শান্তিনগর যাচ্ছিলেন। সঙ্গে তিনিও ছিলেন। শান্তিনগরে একটি দোকানে তাকে কাজে দেবেন বলে তার খালা আগে থেকে কথা বলে রেখেছেন। ভোর ৬টার দিকে তাদের রিকশাটি কমলাপুর বাস ডিপোর সামনে পৌঁছালে সাদা রঙের একটি প্রাইভেটকারে থাকা দুই ছিনতাইকারী তার খালার কাঁধে ঝুলানো ভ্যানিটি ধরে হ্যাঁচকা টান দেয়। তখন রিকশা থেকে পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন সুনিতা রানী। ছিনতাইকারীরা ব্যাগ নিয়ে প্রাইভেটকারে করে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত সুনিতা রানীকে মুগদা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে বেলা সোয়া ১১টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ছেলে সুমন চন্দ্র দাস জানান, সুজিতকে কাজ বুঝিয়ে দেওয়ার পর সেখান থেকে মন্দিরের কাজে যাওয়ার কথা ছিল তার মায়ের। কিন্তু পথে ছিনতাইকারীরা তার মায়ের জীবন কেড়ে নিল। এ ঘটনায় তিনি মামলা করবেন। চিকিৎসকরা বলছেন, সুনিতা রানী মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত পেয়েছিলেন। তবে মাথার আঘাত ছিল গুরুতর। এতেই তার মৃত্যু হতে পারে। মতিঝিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইয়াসির আরাফাত খান জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। প্রাইভেটকারটি শনাক্তের জন্য আশেপাশের সিসিটিভির ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করা হচ্ছে।

এই বিভাগের আরও খবর