বুধবার, ১৭ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ টা
কৃষি

রাঙামাটিতে বিলাতি ধনিয়ার চাষ

রাঙামাটি প্রতিনিধি

রাঙামাটিতে বিলাতি ধনিয়ার চাষ

রাঙামাটিতে এবারও বিলাতি ধনিয়ার বাম্পার ফলন হয়েছে। শুরু হয়েছে বেচা-বিক্রি। দামে কম, মানে ভালো। তাই সবারই আকর্ষণ কেড়েছে পাহাড়ে উৎপাদিত বিলাতি ধনিয়া। এতে লাভবান হচ্ছেন কৃষকরা। চাষিরা বলছেন, এ মৌসুমে কয়েক লাখ টাকার ধনিয়া বাজারজাত করা যাবে। তাই বছরের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে পাহাড়ে বেড়েছে বিলাতি ধনিয়ার চাষাবাদ- বলছেন রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার ওয়াগ্গা ইউনিয়নের কেচিংপাড়া গ্রামের কৃষাণী বাঁধনি তঞ্চঙ্গ্যা। তিনি বলেন, সরকারিভাবে তেমন কোনো সাহায্য-সহযোগিতা পাই না এ বিলাতি ধনিয়া আবাদে। তবুও আমরা বিলাতি ধনিয়া চাষাবাদ করি। এতে লাভ অনেক। ফলন তোলার পর আবারও একই জায়গায় বীজ বপন করা যায়। তাই জমিরও বেশি প্রয়োজন হয় না। কষ্টও কম। আর ফলনও হয় ব্যাপক।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রাঙামাটির কাপ্তাই ও কাউখালী উপজেলায় ব্যাপক চাষাবাদ হচ্ছে বিলাতি ধনিয়ার। পাহাড়ে উৎপাদিত এ বিলাতি ধনিয়া পাতার গন্ধ কড়া। পাতা চ্যাপ্টা হওয়ায় ফলন বেশি। পাতার দুই পাশে খাজকাটা। সবুজ ও ভারি এ পাতা লম্বায় ১৫ থেকে ২০ সেন্টিমিটার এবং চ্যাপ্টায় দুই থেকে তিন সেন্টিমিটার। একবার বীজ বুনলে কয়েক বছর গাছ বেঁচে থাকে। ফলে বারবার পাতা সংগ্রহ করা যায়।

সাধারণত বিলাতি ধনিয়ার সম্পূর্ণ গাছ তুলে সংগ্রহ করা হয় পরে আঁটি বেঁধে বাজারজাত করা হয়।

এ ব্যাপারে বিলাতি ধনিয়া পাতা ব্যবসায়ী আপন বিকাশ তঞ্চঙ্গ্যা বলেন, রাঙামাটি জেলায় কাপ্তাই উপজেলা সাপছড়ি, ওয়াগ্গা, তঞ্চঙ্গ্যাপাড়া, কেচিংপাড়া ও শীলছড়ি মারমাপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় বিলাতি ধনিয়ার ব্যাপক চাষ হয়েছে। আমরা সেখান থেকে বিলাতি ধনিয়া পাতা সংগ্রহ করে বাজারজাত করে থাকি। পাইকারি বাজারে এ ধনিয়া ৬০ থেকে ৮০ টাকা কেজি। আর খুচরা বাজারে ৮০ থেকে ১০০ টাকা পর্যন্ত কেজি দরে বিক্রি করা যায়। রাঙামাটি জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক তপন কুমার পাল জানান, বিলাতি ধনিয়া এ অঞ্চলে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। পাহাড়ের কৃষাণ-কৃষাণীরা যাতে বিলাতি ধনিয়া চাষ করে অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হতে পারেন, সে জন্য রাঙামাটি জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর আন্তরিকভাবে সহযোগিতা করছে। এ ধনিয়াতে তেমন কোনো রোগবালাই দেখা যায় না। সম্প্রতি অতিরিক্ত গরম ও দাবদাহের কারণে বিলাতি ধনিয়া পাতায় ছত্রাকজনিত রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। এ সমস্যা সমাধানে মাঠপর্যায়ে কাজ করছে কৃষি কর্মকর্তারা। এবার রাঙামাটির কাপ্তাই ও কাউখালী উপজেলায় ৫০ হেক্টর জমিতে বিলাতি ধনিয়া পাতা আবাদ হয়েছে। আর এর উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৬৫০ টন।

সর্বশেষ খবর