শিরোনাম
শনিবার, ৮ জুলাই, ২০২৩ ০০:০০ টা

ফের আতঙ্ক ছড়াচ্ছে বন্যা

যমুনায় বাড়ছে পানি, বাঁধে ধস ♦ দক্ষিণে বিপৎসীমার ওপরে

প্রতিদিন ডেস্ক

ফের আতঙ্ক ছড়াচ্ছে বন্যা

সিরাজগঞ্জের যমুনায় বাড়ছে পানি, ভাঙছে পাড়। আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন এলাকাবাসী -বাংলাদেশ প্রতিদিন

সিরাজগঞ্জে যমুনা, লালমনিরহাটে ধরলা ও ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বাড়ছে। বরিশাল বিভাগে সাত নদীর পানি বিপৎসীমার ২ থেকে ৯২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ডুবছে চর ও নিম্নাঞ্চল। সিরাজগঞ্জের কাজীপুরে স্পার বাঁধের ৩০ মিটার ও লালমনিরহাটে ১৩টি বসতবাড়ি গতকাল নদীতে বিলীন হয়েছে। ভোলায় মেঘনার পানি বেড়ে তলিয়ে গেছে ইলিশা লঞ্চঘাট। নেত্রকোনার উব্দাখালী নদীর পানি কমতে শুরু করেছে। আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিরা এসব খবর পাঠিয়েছেন।

সিরাজগঞ্জ : পাহাড়ি ঢলে সিরাজগঞ্জে যমুনা নদীর পানি বাড়ছে। সিরাজগঞ্জ হার্ড পয়েন্টে যমুনা নদীর পানি গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে। কাজীপুর মেঘাই ঘাট পয়েন্টে বেড়েছে ৭ সেন্টিমিটার। যমুনা নদীর প্রবল ঘুর্ণাবর্তে কাজীপুর উপজেলার সলিড স্পার বাঁধে ধস নেমেছে। গতকাল প্রায় ৩০ মিটার বাঁধ নদীতে বিলীন হয়েছে। এতে কাজীপুর থানা, খাদ্যগুদাম, রেজিস্ট্রি অফিস, কাজীপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদ ভবনসহ বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান হুমকির মধ্যে পড়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মাহবুবুর রহমান জানান, কাজীপুরে স্পার বাঁধ ধসের খবর পেয়ে জিওব্যাগ ফেলে ভাঙনরোধের চেষ্টা চলছে। কাজীপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান বিপ্লব জানান, যমুনা নদীতে কয়েকদিন ধরে পানি বাড়ছে।

বরিশাল : বরিশাল বিভাগে সাতটি নদীর পানি জোয়ারের সময় বিপৎসীমার ২ থেকে ৯২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। অন্যান্য নদীর পানিও বিপৎসীমা ছুঁই ছুঁই করে প্রবাহিত হচ্ছে। বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের হাউড্রোগ্রাফি বিভাগের সব শেষ তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার বরগুনার বেতাগী পয়েন্টে বিষখালী নদীর পানি বিপৎসীমার ১১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। ভোলার দৌলতখান উপজেলায় মেঘনা ও সুরমা নদীর পানি বিপৎসীমার ৩৩ সেন্টিমিটার ও তজুমদ্দিন উপজেলায় ৫৭ সেন্টিমিটার, ভোলা খেয়াঘাট পয়েন্টে তেঁতুলিয়া নদীর পানি বিপৎসীমার ৪ সেন্টিমিটার, জেলার হিজলা উপজেলার ধর্মগঞ্জ নদীর পানি বিপৎসীমার ৩ সেন্টিমিটার, উমেদপুর পয়েন্টে কচা নদীর পানি ৯ সেন্টিমিটার এবং পিরোজপুরের বলেশ্বর নদীর পানি বিপৎসীমার ১৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। বরগুনা পয়েন্টে বিষখালী নদীর পানি বিপৎসীমা ছুঁয়েছে, একই নদীর ঝালকাঠী পয়েন্টে বিপৎসীমার ১ সেন্টিমিটার এবং পাথরঘাটা  পয়েন্টে বিষখালী নদীর পানি ২০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় বরিশালের কীর্তনখোলা নদীর পানি বিপৎসীমার ১৮ সেন্টিমিটার, বাকেরগঞ্জের বুড়িশ্বর নদীর পানি ১৯ সেন্টিমিটার, পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে বুড়িশ্বর ও পায়রা নদীর পানি ১ সেন্টিমিটার এবং বুড়িশ্বর ও পায়রা নদীর পানি আমতলী পয়েন্ট বিপৎসীমার ৬ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়। বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রাকিব হোসেন জানান, পূর্ণিমার জো এবং উত্তরাঞ্চলের বন্যার প্রভাবে বরিশালে নদীর পানি বাড়ছে। প্রতিদিন দুবার জোয়ারের সময় অনেক নদীর পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করে, আবার ভাটার সময় পানি নেমে যায়। আগামী কয়েকদিনে উত্তরাঞ্চলের পানি বঙ্গোপসাগরে নামার সময় বরিশালে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে।

ভোলা : জেলায় গতকাল সন্ধ্যায় জোয়ারে মেঘনা নদীর পানি বিপৎসীমার ১০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। তলিয়ে গেছে ইলিশা লঞ্চঘাটের সংযোগ সড়ক। ভোগান্তিতে পড়েছেন ভোলা-ঢাকা রুটে চলাচলকারী হাজার হাজার যাত্রী। ভোলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. হাসানুজ্জামান বলেন, সকাল থেকে মেঘনার পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়।

লালমনিরহাট :  তিস্তার পানি কমলেও বাড়ছে ধরলা নদী ও ব্রহ্মপুত্র নদের পানি। তবে তিস্তার পানি কমার সঙ্গে দুই তীরে দেখা দিয়েছে ভাঙন। গত ২৪ ঘণ্টায় নদীতে ১৩টি বসতবাড়ি বিলীন হয়েছে। হাতীবান্ধার গড্ডিমারি, সিংগীমারী, সিন্দুর্ণা, ডাউয়াবাড়ী, পাটিকাপাড়া, আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা ও লালমনিরহাট সদরের খুনিয়াগাছ, কালমাটি এলাকায় দেখা দিয়েছে তিস্তার ভয়াবহ ভাঙন। ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আসাফউদ্দৌলা জানান, তিস্তার পানি বিপৎসীমার শূন্য দশমিক ৪০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়।

নেত্রকোনা : জেলায় নদনদীর পানি কমতে শুরু করেছে। কলমাকান্দা উপজেলার উব্দাখালী নদীর পানি মঙ্গলবার থেকে কমছে।

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর