শিরোনাম
শুক্রবার, ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ০০:০০ টা
অষ্টম কলাম

চিকিৎসক আহত ওষুধ প্রতিনিধির হামলায়

শরীয়তপুর প্রতিনিধি

শরীয়তপুরে ওষুধ কোম্পানির রিপ্রেজেন্টেটিভের চাহিদামতো ওষুধ না লেখায় এক নারী চিকিৎসকের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ওই চিকিৎসকের স্বামী ও মাকেও পিটিয়ে আহত করে ওই রিপ্রেজেন্টেটিভ ও তার লোকজন। আহতদের ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় দুজনকে আটকের কথা জানিয়েছে শরীয়তপুর পুলিশ সুপার মাহবুবুল আলম। আটককৃতরা হলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের তথ্য বিষয়ক সম্পাদক জুলহাস মাদবর ও ল্যাবএইড ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানির রিপ্রেজেন্টেটিভ শহীদুল ইসলাম। ডা. নুসরাত তারিন তন্বী বলেন, আমি ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেডিকেল অফিসার হিসেবে কর্মরত। রিপ্রেজেন্টেটিভ শহীদুল ইসলাম তার নিজ কোম্পানির ওষুধ প্রেসক্রাইব করার জন্য আমাকে চাপ দিয়ে আসছিল। তার কোম্পানির ওষুধ না লেখায় ক্ষিপ্ত হয়ে বুধবার রাত ৮টার দিকে আমার ওপর হামলা চালায়। আমার স্বামী ডা. মঞ্জুরুল ইসলাম ভূইয়া রাফি ও আমার মা মাসুমা খাতুন লাকি এগিয়ে এলে তাদেরকেও পিটিয়ে আহত করে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই। ডা. নুসরাত তারিন তন্বীর মা মাসুমা খাতুন লাকি বলেন, ওরা আমার মেয়েকে মেরেছে। তাকে উদ্ধার করতে গেলে আমাকেও পিটিয়ে আহত করে। ডা. নুসরাত তারিন তন্বীর স্বামী ডা. মঞ্জুরুল ইসলাম ভূইয়া রাফী বলেন, এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। শরীয়তপুর পুলিশ সুপার মাহবুবুল আলম বলেন, ডাক্তার দম্পতির ওপর হামলার ঘটনায় প্রধান আসামিসহ দুজনকে গ্রেফতার করেছি। অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা হবে।

সর্বশেষ খবর