Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ অক্টোবর, ২০১৯ ১১:২২

আম্মু খুব অসুস্থ, শুধু চুপ করে থাকেন আর কাঁদেন: এমপি বুবলীর মেয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক

আম্মু খুব অসুস্থ, শুধু চুপ করে থাকেন আর কাঁদেন: এমপি বুবলীর মেয়ে
তামান্না নুসরাত বুবলী (ফাইল ছবি)

অসুস্থ হয়ে পড়েছেন সম্প্রতি বিএ প্রক্সি পরীক্ষাকাণ্ডে অভিযুক্ত সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য তামান্না নুসরাত বুবলী। গত দু'দিনে পানি ছাড়া কিছুই মুখে দেননি বলে জানিয়েছেন তার একমাত্র কন্যা মিসফা জান্নাত নাজা। আজ সোমবার সকালে বুবলীর মুঠোফোনে তথ্য জানতে ফোন দিলে অপর প্রান্ত থেকে ফোনটি রিসিভ করেন নাজা নামের একটি মেয়ে। এমপি বুবলী কোথায় জানতে চাইলে নাজা বলেন, ‘আম্মু খুব অসুস্থ, কিছুই খাচ্ছে না। শুধু চুপ করে থাকছেন। কারো সঙ্গে কোন কথা বলছেন না। আমার আম্মু ভীষণ অসুস্থ। আম্মুকে ডাক্তার দেখানোর প্রয়োজন। এজন্য ডাক্তার আনা হচ্ছে।’ পরীক্ষায় জালিয়াতির পর এমপি বুবলীকে গণভবনে তলব করা হয়েছে-এমন খবর ছড়িয়ে পড়ায় তার সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয়। তবে তিনি ফোন ধরেননি। 

এমপি বুবলীর পারিবরিক সূত্র জানিয়েছে, ঘটনার পর থেকে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন বুবলী। পরিবারের কারো ফোন ধরছেন না। তবে পরিবারের একাধিক সূত্র জানিয়েছে, বুবলীকে এখন পর্যন্ত গণভবন থেকে তলব করা হয়নি। কোন ধরনের ফোনও তাকে করা হয়নি। তবে গণভবন থেকে ডাকা না হলেও সুস্থ হয়ে উঠেই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে নিজের অবস্থান পরিষ্কার করবেন এমপি বুবলী। 

প্রসঙ্গত, একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনে সদস্য নির্বাচিত হওয়া তামান্না নুসরাত বুবলী ২০১১ সালে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত নরসিংদীর পৌরসভার তৎকালীন মেয়র লোকমান হোসেনের স্ত্রী। একাদশ জাতীয় নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া হলফনামা অনুযায়ী সংসদ সদস্য বুবলী এইচএসসি পাস। উচ্চ শিক্ষার জন্য উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএ কোর্সে ভর্তি হন তিনি। গত শুক্রবার বাউবির বিএ কোর্স পরীক্ষায় এমপি বুবলী ঢাকায় থাকলেও তার হয়ে অন্যরা পরীক্ষা দেওয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে। 

পরে জালিয়াতির বিষয়টি তদন্তে কলেজের পক্ষ থেকে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করার কথা জানিয়ে বাউবির উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক এম এ মান্নান বলেন, বুবলী নিজে পরীক্ষা না দিয়ে পরপর ৮টি পরীক্ষায় তার পক্ষে প্রক্সি পরীক্ষার্থীরা অংশ নেয়। তবে শেষ দিনের পরীক্ষা দিতে গিয়ে হলে হাতেনাতে ধরা পড়েছেন এক শিক্ষার্থী। 

এদিকে, ঘটনাটি ধরা পড়া এবং এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশের পর প্রাথমিক তদন্ত শেষে পরীক্ষা থেকে তাকে বহিষ্কার করে কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ। ঘটনার পর শুক্র ও শনিবার বুবলী পক্ষ থেকে কোন বক্তব্য না পাওয়া গেলেও রবিবার ঢাকা এমপি হোস্টেলে একটি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিয়ে এমপি বুবলী দাবি করেন, ভাড়াটে শিক্ষার্থী দিয়ে পরীক্ষা দেয়ার কথা জানাই ছিল না তার। কিন্তু এমন জালিয়াতির পরও কেন চুপচাপ ছিলেন? দায় অস্বীকার করলেও বুবলী ক্ষমা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও তার নিজ এলাকার মানুষের কাছে। তবে, এতকিছুর পর থেমে যেতে চান না সামনের পরীক্ষায় নিজেই অংশ নিতে চান। এছাড়া বুবলী ওই সাক্ষাৎকারে আরো দাবি করেন অসুস্থতার কারণে পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেননি। কিন্তু ব্যক্তিগত কর্মকর্তা তাকে সারপ্রাইজ দেয়ার জন্য অন্যকে দিয়ে পরীক্ষা দিয়েছেন। তবে এই ঘটনায় তিনি লজ্জিত বলেও জানান।

বিডি-প্রতিদিন/মাহবুব


আপনার মন্তব্য