শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ এপ্রিল, ২০১৯ ০২:৩০

জনকল্যাণমূলক উদ্ভাবনী উদ্যোগ গ্রহণ করা উচিত

-বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

জনকল্যাণমূলক উদ্ভাবনী উদ্যোগ গ্রহণ করা উচিত

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, দ্রুত সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত নিতে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ানো অপরিহার্য। উন্নয়নের জন্য অ্যাডহক ভিত্তিতে নয়, সমন্বিত প্রকল্প গ্রহণ করুন। সিদ্ধান্ত ও উন্নয়ন একই সূত্রে গাঁথা। কাস্টমার সার্ভিস বাড়াতে হবে। জনকল্যাণমূলক উদ্ভাবনী উদ্যোগ গ্রহণ করা উচিত। এসব কাজে প্রণোদনা অব্যাহত রাখা হবে। গতকাল বিদ্যুৎ ভবনে বিদ্যুৎ বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত ‘ইনোভেশন শোকেসিং-২০১৯’-এ বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিদ্যুৎ বিভাগের সিনিয়র সচিব ড. আহমদ কায়কাউসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বীরবিক্রম, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব (সমন্বয় ও সংস্থাপন) ড. মো. শামসুল আরেফিন, প্রকল্প পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান ও বিদ্যুৎ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মাকসুদা বেগম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বীরবিক্রম বলেন, বিদ্যুৎ বিভাগের উদ্ভাবনী কর্মসূচি মানুষের আস্থা বাড়িয়েছে। বস্তি এলকায় দ্রুত বিদ্যুৎ সংযোগ কিংবা আলোর ফেরিওয়ালা কর্মসূচি এ আস্থাকে সুসংহত করেছে। মুক্তচিন্তা লালন ও বিকাশকে উৎসাহিত করার ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, ইপিআরসির কার্যক্রম উদ্ভাবনী উদ্যোগের সঙ্গে সম্পৃক্ত করা উচিত।

বিদ্যুৎ বিভাগ ও আওতাধীন দফতর/সংস্থা/কোম্পানির সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত ইনোভেশন শোকেসিং-২০১৯-এর ২৫টি পাইলট উদ্ভাবনী উদ্যোগের মধ্য থেকে ৫টি উদ্যোগকে পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত করা হয়।


আপনার মন্তব্য