শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ জানুয়ারি, ২০২০ ১৬:৪০
আপডেট : ১৬ জানুয়ারি, ২০২০ ১৬:৪৫

সৌদিতে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম চালুর সম্ভাবতা যাচাই করছে দূতাবাস

মোহাম্মদ আল-আমীন, সৌদি আরব

সৌদিতে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম চালুর সম্ভাবতা যাচাই করছে দূতাবাস

ছাত্র হিসেবে মেধাবী হলেও পারিবারিক অভাব-অনটনের কারণে পড়াশুনা শেষ না করেই ভাগ্যের চাকা ঘুরাতে অনেক মেধাবী শিক্ষার্থী পাড়ি জমিয়েছেন মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরবে। প্রবাসে হাড় ভাঙ্গা খাটুনির পর অভাব দূর হয়েছে, হয়েছে অনেক কিছু। কিন্তু হয়নি প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা এবং সেই শিক্ষার সনদ। আবার অনেকে আছেন যারা সব যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও শুধুমাত্র সার্টিফিকেটের অভাবে হচ্ছে না কাঙ্ক্ষিত পদোন্নতি। সৌদি আরবে বসবাসরত এমন প্রবাসীদের জন্য দারুন সুখবর দিয়েছে উম্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়। প্রবাসীদের দক্ষতা ও শিক্ষাগত যোগ্যতা বৃদ্ধি করতে খুব শিগগিরই সৌদি আরবে কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়। সম্প্রতি এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ দূতাবাস রিয়াদ।

বর্তমানে সৌদি আররে ২১ লক্ষাধিক বাংলাদেশি বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন। সকল যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও শুধু সার্টিফিকেটের অভাবে পদোন্নতি পাচ্ছেন না অনেকে। প্রবাস থেকে ছুটিতে দেশে গিয়ে পড়াশুনার মতো সময় ও সুযোগ না থাকায় প্রবাসে বসে যাতে পড়াশুনা করতে পারে সে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি প্রবাসীদের দাবি ছিল দীর্ঘদিনের। প্রবাসীদের এমন দাবির সপক্ষে এগিয়ে এলো বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (বাউবি) কর্তৃপক্ষ। এর আগে ২০১৯ সালে দক্ষিণ কোরিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসের সহযোগিতায় বাউবি অনলাইনে এইচএসসি ও বিএ শিক্ষা প্রোগ্রাম চালু করেছে। 

সৌদিতে কি পরিমাণ শিক্ষার্থী আছে তার সম্ভাবতা যাচাইয়ের জন্য সম্প্রতি এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বাংলাদেশ দূতাবাস রিয়াদ। সৌদি আরবের বিভিন্ন শহরে অবস্থানরত এসএসসি, এইচএসসি, বিএ, বিএসএস এবং এমবিএ'তে পড়তে আগ্রহী বাংলাদেশিরা নিজেদের নাম, কোর্সের নাম ,সৌদি আরবের শহরের নাম এবং মোবাইল নাম্বার উল্লেখ করে আগামী ২৫ জানুয়ারির মধ্যে [email protected] ঠিকানায় ইমেইল করতে বলা হয়েছে।

দূতাবাসের প্রথম সচিব (প্রেস) মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম বলেন, কি পরিমাণ বাংলাদেশি পড়াশুনা করতে ইচ্ছুক সেটা জানার পর সে আলোকে একটি প্রস্তাবনা দূতাবাস থেকে পাঠানো হবে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে। এরপর তারা সেটি সরেজমিনে যাচাই-বাছাই করে অনুমতি দিলে আমরা ভর্তির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করবো। 

বাংলাদেশ সরকারের সবার জন্য শিক্ষানীতির আলোকে বিদেশে বসবাসরত বাংলাদেশি কর্মীদের শিক্ষা সুবিধা বিস্তারের মাধ্যমে ২০৪১ সালে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। এমন উদ্যোগ বাস্তবায়িত হলে একদিকে প্রবাসীরা সুযোগ পাবেন উচ্চ শিক্ষার, অন্যদিকে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জনের মাধ্যমে কর্মস্থলে নিজেদের দক্ষতার স্বাক্ষর রাখতে পারবেন তারা। সংশ্লিষ্টদের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন প্রবাসীরা।

বিডি-প্রতিদিন/মাহবুব

 


আপনার মন্তব্য