শিরোনাম
প্রকাশ : ৩০ নভেম্বর, ২০১৯ ০৯:১০
আপডেট : ৩০ নভেম্বর, ২০১৯ ০৯:১৬

বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম ডাটা সেন্টার বাংলাদেশে

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম ডাটা সেন্টার বাংলাদেশে

আইটি ডাটা সুরক্ষা, নিরাপদ ও নির্ভরযোগ্য ডাটা ব্যবহার নিশ্চিত করে গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈরে ফোর টায়ার জাতীয় ডাটা সেন্টারটি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। এটি বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম ডাটা সেন্টার। এর আপটাইম ৯৯ দশমিক ৯৯ শতাংশ। এখানে ডাটা স্টোরেজ ব্যাকআপ, রিকভারি, ডাটা সিকিউরিটি, ডাটা শেয়ারিং, ই-গভর্নেন্স, ই-সার্ভিস পাওয়া যাবে।

এর ফলে বিদেশি ডাটা সেন্টারে তথ্য সংরক্ষণের ঝামেলা থেকে রেহাই পাবে সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। এতে তথ্য পাচারের ঝুঁকি কমার পাশাপাশি বিপুল অর্থ সাশ্রয়, ইন্টারনেটভিত্তিক নাগরিক সেবা দ্রুত নিশ্চিত করা সম্ভব হবে। এ সেন্টারে মিলবে অনলাইন ভিত্তিক সকল তথ্য সেবা। তথ্য যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানিয়েছেন, সবমিলিয়ে লক্ষাধিক ওয়েবসাইট আমরা হোস্ট করছি ডেটা সেন্টারে। এটা না থাকলে সরকারকে ৩৫৩ কোটি টাকা অন্য কাউকে ভাড়া হিসেবে দিতে হতো।

ফোর টায়ার জাতীয় ডাটা সেন্টারের প্রকল্প পরিচালক আবু সাঈদ চৌধুরী। এ ডাটা সেন্টারের তথ্য ধারণক্ষমতা ২ পেটাবাইট (১০ লাখ গিগাবাইট=১ পেটাবাইট)। সরকারি অর্থ এবং চীনের আর্থিক ও কারিগরি সহযোগিতায় নির্মিত এই ডাটা সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর ২০১৬ সালের ১৪ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিন পিং যৌথভাবে স্থাপন করেন।

বিশ্বের সেরা মান নির্ধারণ প্রতিষ্ঠান যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ‘আপটাইম ইনস্টিটিউট’ থেকে প্রিজারমেন্ট ডকুমেন্টশনের ওপর একটি কনস্ট্রাকশন ফ্যাসিলিটিজ’র জন্য একটিসহ মোট দুটি সনদ অর্জন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। সনদপত্র দুটি অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এবং মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য