Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৯ অক্টোবর, ২০১৪ ১৮:২০ অনলাইন ভার্সন
পরীর \\\'মহুয়া সুন্দরী\\\' শুরু হচ্ছে কাল
পরীর \\\'মহুয়া সুন্দরী\\\' শুরু হচ্ছে কাল

ময়মনসিংহ গীতিকার মহুয়া সুন্দরীকে আবারও দেখা যাবে রূপালী পর্দায়। আবারও মহুয়ার প্রেমে মজবে গোটা হল। আর এবার মহুয়া চরিত্রে দর্শকের মন মাতাবেন এরইমধ্যে 'কিউট গার্ল' খেতাব পাওয়া উঠতি নায়িকা পরীমনি। কাল থেকে শুরু হচ্ছে ছবিটির শ্যুটিং। ২০১৩-১৪ অর্থবছরে তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে সরকারি অনুদান পাওয়া এ সিনেমাটিতে নায়ক হিসেবে থাকছেন সুমিত। 

মহুয়া সুন্দরী আগেও আবির্ভূত হয়েছে রূপালী পর্দায়। ১৯৬৬ সালে আলি মনসুর নির্মাণ করেছিলেন ‘মহুয়া’। পরে ১৯৮৬ সালে শামসুদ্দিন টগর নির্মাণ করেন ‘মহুয়া সুন্দরী’। এবার 'মহুয়া সুন্দরী' রিমেক করছেন পরিচালক রওশন আরা নিপা। 

নিপা জানান, 'মহুয়া সুন্দরী' একটি নিখুঁত প্রেমের গল্প। এ সময়ের প্রেক্ষাপটে ফ্ল্যাশব্যাকে হাজির করা হবে মহুয়া সুন্দরীকে। যাত্রাপালার নায়িকা 'ছবি'র মাধ্যমে তিনি দর্শককে নিয়ে যাবেন মহুয়ার কাছে। আর এ ছবি চরিত্রটিতেই থাকছেন পরীমনি। 

জানা গেছে, সিনেমায় পরীমনি থাকবেন যাত্রদলের নায়িকা হিসেবে। যাত্রায় মহুয়া চরিত্রে অভিনয় করতে গিয়ে ছবি তিনি নিজেকে মহুয়া ভাবতে শুরু করেন। অন্যদিকে যাত্রা দেখতে আসা জীবনও নিজেকে মহুয়ার প্রেমিক জমিদারবাবু ভাবতে শুরু করেন। এরপর শুরু হয় স্বপ্নগাঁথা। দু'টো অবুঝ মনের প্রেমের কাব্য। 

১৯৯৭ সালে 'গোধূলির লগন' নাটকের মাধ্যমে পরিচালনায় আসেন নিপা। এরপর 'আপন আমার আপন', 'বিজয়িনী', 'অবাক জলপান'সহ বেশকটি নাটক নির্মাণ করেন তিনি। 'ঠাকুরমার ঝুলি' এবং 'কুয়াশার কণা' নামে দুটি ধারাবাহিকও নির্মাণ করেছেন তিনি। তবে নিপা বেশি মনোযোগী ছিলেন প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণের প্রতি। দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর শিশুদের নিয়ে ‘চিলড্রেন ইন দ্য হিডেন ওয়ার্ল্ড’ শিরোনামে প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণের মাধ্যমে সে যাত্রা শুরু। সম্প্রতি তিনি ‘জননী’ নামে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছেন। 

অন্যদিকে মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে পরী মনি অভিনিত 'ভালোবাসা সীমাহীন', 'রানা প্লাজা', 'মনজুড়ে তুই' ও 'পুড়ে যায় মন'। এছাড়া শুটিং চলছে 'মন জানে না মনের ঠিকানা', 'লাভার নাম্বার ওয়ান' ও 'ধূমকেতু'সহ আরও কয়েকটি ছবির। এছাড়া হাতে রয়েছে এ আরও কয়েকটি ছবি।

আপনার মন্তব্য

up-arrow