২৪ জুন, ২০২৪ ২১:০৭

ডিএমপিকে স্মার্ট পুলিশ বক্স উপহার দিল বুয়েট

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

ডিএমপিকে স্মার্ট পুলিশ বক্স উপহার দিল বুয়েট

পলাশী মোড়ে পাঁচ রাস্তার সংযোগ স্থল পলাশী বাজারের পাশে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশকে (ডিএমপি) স্মার্ট ট্র্যাফিক পুলিশ বক্স নির্মাণ করে দিয়েছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)।

সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সত্য প্রসাদ মজুমদার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এর উদ্বোধন করেন।

অধ্যাপক ড. সত্য প্রসাদ মজুমদার বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ সারাদেশের জনগণকে প্রতিনিয়ত সেবা দিয়ে যাচ্ছে। যারা আমাদেরকে সেবা দিচ্ছেন আমাদেরও তাদের প্রতি একটা কর্তব্য আছে। এই পলাশীর মোড়ে দায়িত্বরত ট্র্যাফিক সদস্যদের কথা বিবেচনা করে সিটি কর্পোরেশনের অনুমোদনক্রমে বুয়েটের পক্ষ থেকে এখানে একটি পুলিশ বক্স তৈরি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, স্মার্ট বাংলাদেশের পরিপ্রেক্ষিতে প্রত্যেকটা সার্ভিস হতে হবে স্মার্ট সার্ভিস। ট্র্যাফিক পুলিশে যেন তাদের কাজটা সঠিকভাবে করতে পারে সেজন্য আমাদের পক্ষ থেকে এই দৃষ্টিনন্দন স্মার্ট পুলিশ বক্স তৈরি করা হয়েছে। এখানে সিসিটিভি কন্ট্রোলরুম থাকবে, থাকবে নিরাপদ বাইক পার্কিং ব্যবস্থা। তাছাড়াও হাই স্পিড ওয়াইফাই সংযোগের জন্য বুয়েটের পক্ষ থেকে আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্র্যাফিক) মো. মুনিবুর রহমান বিপিএম বলেন, পলাশী মোড় হচ্ছে ট্রাফিকের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি পয়েন্ট। যে কারণে এখানে ইন্টার সেকশনটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যস্ত ইন্টার সেকশন। ট্র্যাফিক পুলিশ রাস্তায় দায়িত্ব পালন করে থাকে। যার জন্য তাদের রিফ্রেশমেন্টের প্রয়োজন হয়। সেই জন্য এই ট্র্যাফিক বক্সটা অত্যন্ত সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। ট্র্যাফিক বক্সটি অত্যন্ত চমৎকার জায়গায় স্থাপিত হয়েছে। এতে ফুটপাতে লোকজন অনায়াসে চলাচল করতে পারবে। আমি অনেকগুলো ট্র্যাফিক বক্স দেখেছি। আমার কাছে মনে হয়েছে নির্মাণশৈলীর দিক দিয়ে এটি বেস্ট ট্র্যাফিক বক্স। অন্যান্য ট্র্যাফিক বিভাগে আমরা এর মডেল অনুসরণ করতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, আজকের এই অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বুয়েটের সাথে ট্রাফিকের সম্পর্ক নিঃসন্দেহে এক অনন্য মাত্রায় উন্নীত হবে। আপনাদের পক্ষ থেকে কোন পরামর্শ থাকলে আমরা সেগুলো গ্রহণ করতে সর্বদা প্রস্তুত আছি। ভবিষ্যতে আরও নিবিড়ভাবে আপনাদের সাথে আমরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করবো।

উল্লেখ্য, একই দিনে বহুদিনের প্রত্যাশিত বুয়েটের প্রধান ফটক, কেন্দ্রীয় অডিটোরিয়াম সংস্কার কাজ ও একটি স্যুভেনির শপের উদ্বোধন করা হয়। সকল অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বুয়েটের প্রধান প্রকৌশলী ড. এ কে এম জাহাঙ্গীর আলম।

বিডিপ্রতিদিন/কবিরুল

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর