Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ মে, ২০১৯ ১৫:১৩

তিন ঘণ্টার বৃষ্টিতে হবিগঞ্জে জলাবদ্ধতা

সিলেট ব্যুরো

তিন ঘণ্টার বৃষ্টিতে হবিগঞ্জে জলাবদ্ধতা

মাত্র তিন ঘণ্টার ভারি বর্ষণে হবিগঞ্জ শহরের বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন নগরবাসী।

শুক্রবার ভোর রাতে হবিগঞ্জ শহরসহ বিভিন্ন এলাকায় তিন ঘন্টার টানা বর্ষণ হয়। এতে শহরের বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। সেই সাথে বিভিন্ন এলাকায় রাস্তায় কাদা জমে যায়। এছাড়া শহরের নিম্নাঞ্চলের অধিকাংশ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। এতে ভোগান্তিতে পড়েন পৌরবাসী।

শহরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখো যায়, শায়েস্তানগর, ইনাতাবাদ, চৌধুরীবাজার, সার্কিট হাউজ রোড, নোয়াহাটি, পুলিশ সুপারের বাস ভবন, বগলবাজার, উত্তর শ্যামলী, নোয়াবাদ, মোহনপুর, শ্যামলী, জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও বাস ভবন, পুরাতন হাসপাতাল সড়ক, কালিগাছ তলাসহ বিভিন্ন এলাকায় পানি প্রবেশ করে আকস্মিক বন্যা দেখা দিয়েছে। ফলে মানুষের ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করেছে। অনেক বাসা-বাড়িতে পানি ঢুকে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। এতে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলেও জানান অনেকে।

পৌরবাসীর অভিযোগ, পানি নিষ্কাশনের সুব্যবস্থা না থাকায় একটু বৃষ্টি হলেই শহরে জলাবদ্ধতা দেখা দেয়। বছরের পর বছর পৌরবাসী জলাবদ্ধতার সাথে যুদ্ধ করে আসলেও সমস্যা সমাধানে উদাসিন পৌর কর্তৃপক্ষ।

শায়েস্তানগর এলাকার পুরাতন কাপড় ব্যবসায়ি চাচ্চু মিয়া জানান- শায়েস্তানগর এলাকায় সামান্য বৃষ্টি হলেই জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। এতে আমরা ব্যবসায়িসহ এলাকাবসীকে সীমাহীন দুর্ভোগে পড়তে হয়। অথচ পৌর কর্তৃপক্ষ এই দুর্ভোগ নিরসনে কার্যকর কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করছে না।

জলাবদ্ধতা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে স্থানীয় বাসিন্দা শাহ্ আলম বলেন, ‘শহরের জলাবদ্ধতা দূর করার জন্য অনেক টাকা খরচ করে নর্দমা নির্মাণ করা হয়েছে। কিন্তু তারপরও জলাবদ্ধতার হাত থেকে আমরা রক্ষা পাচ্ছি না।’

এ ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত পৌর মেয়র দীলিপ দাসের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও সম্ভব হয়নি। 

বিডি-প্রতিদিন/২৪ মে, ২০১৯/মাহবুব


আপনার মন্তব্য