Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৫:৫৬
আপডেট : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৬:২৭

১০ ঘণ্টা পর বৃহত্তর চট্টগ্রামে পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার

নিজহস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

১০ ঘণ্টা পর বৃহত্তর চট্টগ্রামে পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার

বৃহত্তর চট্টগ্রামে পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে। প্রশাসনের আশ্বাসে ১০ ঘণ্টার পর বিকাল ৪টার দিকে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট কর্মসূচি প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয় চট্টগ্রাম বিভাগীয় গণ ও পণ্য পরিবহন মালিক ঐক্য পরিষদ।

এর আগে, রবিবার ভোর থেকে চট্টগ্রাম বিভাগের ৯টি জেলায় (ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও চাঁদপুর ছাড়া) অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের কারণে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়। এতে চট্টগ্রামের সঙ্গে কক্সবাজার, তিন পার্বত্য জেলা, নোয়াখালী, কুমিল্লা, ফেনী, লক্ষ্মীপুর জেলায় যাত্রী ও পণ্যবাহী সব ধরনের গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ফলে রবিবার সকাল থেকে চরম ভোগান্তিতে পড়ে সাধারণ মানুষ। রাস্তায় গণ পরিবহন না থাকায় অনেকে তাদের গন্তব্যে যেতে পারেননি।

জানা গেছে, ৯ দফা দাবিতে গত ৪ সেপ্টেম্বর সংবাদ সম্মেলন করে ৭২ ঘণ্টার দেয়া আল্টিমেটাম দিয়েছিল বলে জানান মালিক সমিতির নেতারা। চট্টগ্রাম জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের সভাপতি ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু বলেন, গণ ও পণ্য পরিবহনের কাগজপত্র হালনাগাদ করার জন্য জরিমানা মওকুফ করা, জরিমানা মওকুফের সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত কাগজপত্র যাচাই বাছাইয়ের নামে হয়রানি বন্ধ করাসহ ৯ দফা দাবিতে চট্টগ্রাম বিভাগের ১৪টি সংগঠন এ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে।

এদিকে, রবিবার সকাল থেকে গণপরিবহন সংকটে চাকরিজীবী ও শিক্ষার্থীদের চরম দুর্ভোগে পড়তে হয়েছে। বিশেষ করে নগরীর বাইরে পার্শ্ববর্তী উপজেলা শহরে থেকে যারা বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন এবং যারা নিজেদের বাড়িতে থেকে শহরের স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন তাদের ভোগান্তি হয়েছে সবচেয়ে বেশি। তাদের কাউকে কাউকে দ্বিগুণ-তিনগুণ ভাড়া দিয়ে সিএনজি অটোরিকশা ও রিকশাযোগে নগরীতে প্রবেশ করতে হয়েছে। এতে চরম দুর্ভোগ ও বিপাকে পড়তে হয়েছে সাধারণ যাত্রীদের।

 বিডি-প্রতিদিন/মাহবুব


আপনার মন্তব্য