শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ জুলাই, ২০২০ ২১:৪০

চট্টগ্রাম বন্দরের তিন ৩ নম্বর শেডে আগুন, তদন্ত কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রাম বন্দরের তিন ৩ নম্বর শেডে আগুন, তদন্ত কমিটি গঠন

চট্টগ্রাম বন্দরের ৩ নম্বর শেডে (আমদানি-রপ্তানি পণ্য সংরক্ষানাগার) আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। হঠাৎ লাগা এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে হতবিহ্বল হয়ে পড়েন বন্দর জেটি ও শেডে থাকা কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। 

আগুন দ্রুত নিয়ন্ত্রণে আনতে বন্দরের নিজস্ব অগ্নিনির্বাপণ গাড়ির বাইরে আগুন কাজ করে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ৭টি গাড়ি। আজ বুধবার বিকেল চারটার দিকে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে বন্দর সূত্রে জানা গেছে।

ফায়ার সার্ভিস ও বন্দর সূত্র জানায়, ৩ নম্বর শেডে আকস্মিকভাবে আগুন লেগে যায়। খবর পেয়ে বন্দরের নিজস্ব অগ্নিনির্বাপণকারী গাড়ি ছাড়াও ফায়ার সার্ভিসের আগ্রাবাদ ও বন্দর স্টেশন থেকে ৭টি গাড়ি পাঠানো হয়েছে। গাড়ি ও ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকর্মীরা পণ্য উদ্ধার ও আগুন নির্বাপনের কাজ চালিয়ে যায়।

এদিকে, আগুন লাগার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন বন্দর চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল এসএম আবুল কালাম আজাদসহ বন্দরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

বন্দর সচিব মো. ওমর ফারুক জানান, ৩ নম্বর শেডে ধ্বংসযোগ্য কিছু পণ্য রাখা হয়েছিলো। আগুন লাগার কারণ ও ক্ষতির পরিমাণ নির্ণয়ে বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য (প্রশাসন ও পরিকল্পনা) মো. জাফর আলমকে প্রধান করে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ সহকারী পরিচালক আলী আকবর ঘটনাস্থল থেকে সন্ধ্যা সোয়া সাতটায় বলেন, আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। এখন ডাম্পিংয়ের কাজ চলছে। এখানে তরল জাতীয় পদার্থ ভর্তি ড্রাম, কাপড়ের রোল, নথিপত্রসহ বিভিন্ন ধরনের পুরোনো পণ্যসামগ্রী দেখা যাচ্ছে। আগুন লাগার কারণ ও ক্ষতির পরিমাণ তদন্ত সাপেক্ষে বলা হবে বলে জানান তিনি।

বন্দর সূত্র জানায়, ৩ নম্বর শেডে কেমিক্যাল, ফেব্রিক্সসহ বিভিন্ন ধরনের দাহ্য পণ্য থাকায় আগুন নিয়ন্ত্রণে বেগ পেতে হয়েছে ফায়ার সার্ভিসকে। এসময় অনেক দূর থেকেও ধোঁয়ার কুণ্ডলী দেখা যায়। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে জেটি, ইয়ার্ড ও আশপাশের এলাকায়। শেডের কাছে ৩ ও ৪ নম্বর জেটিতে থাকা দুইটি জাহাজ নিরাপদ অবস্থানে সরিয়ে নেওয়ার পাইলট তোলা হলেও পরে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসায় সরানো হয়নি।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর