শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ মে, ২০২১ ২১:৪৫
প্রিন্ট করুন printer

ভারতফেরত ১০ জনকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

ভারতফেরত ১০ জনকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি
Google News

চলমান করোনা মহামারীর মাঝে চিকিৎসা নিতে যাওয়া ভারতফেরত ১০ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তারা ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন। তবে এ ১০ জনের শরীরে কোভিড-১৯ ভাইরাস পাওয়া যায়নি।

জানা যায়, গত ৪ মে তারা দেশে ফিরে যশোর-বেনাপোল বক্ষব্যাধি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। গত বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে তাদেরকে চমেক হাসপাতালে আনা হয়। ভারতফেরত এই ১০ জনের মধ্যে সাতজনকে হাসপাতালের ২৯নং ওয়ার্ডের কেবিনে ও তিনজনকে ১৬নং মেডিসিন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে বেশিরভাগই ক্যানসার আক্রান্ত রোগী। রয়েছেন তাদের অভিভাবকও। 

হাসপাতালের ভর্তি থাকা ইকবাল হোসেন নামে এক রোগীর স্বজন বলেন, ‘চিকিৎসার জন্য গত ফেব্রুয়ারি ভারতে গিয়েছিলাম। কলকাতা থেকে গত ৪ মে যশোর আসি। তবে আসার আগে করোনা টেস্টে নেগেটিভ রিপোর্ট আসে। এখানেও করোনা টেস্টে নেগেটিভ রিপোর্ট এসেছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলেছে, আমাদের বাড়িতে পাঠিয়ে দিবে।’   

চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এস এম হুমায়ুন কবির বলেন, ‘ভারতফেরতদের কারও শরীরে কোভিড শনাক্ত হয়নি। তবে তিনজনের শরীর অসুস্থ থাকায় তাদের মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি দেয়া হয়। সবাইকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।’

চমেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়া বলেন, ‘ভারতে চিকিৎসা নিয়ে আসা চট্টগ্রামে ১০ জনকে প্রাথমিক তত্ত্বাবধানের জন্য হাসপাতালে রাখা হয়েছে। তাদের মধ্যে ফটিকছড়ি উপজেলার তিনজন, চন্দনাইশ উপজেলার তিনজন, কর্ণফুলী থানার তিন এবং পটিয়া উপজেলার একজন আছেন।’

প্রসঙ্গত, গত ৪ মে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের বেনাপোল বন্দর হয়ে বিভিন্ন জেলার মানুষ বাংলাদেশে আসে। তখন এদের সবাইকে কোভিড-১৯ পরীক্ষা করে যশোর বক্ষ্যব্যাধী হাসপাতালে রাখা হয়। তবে গতকাল কর্তৃপক্ষের নির্দেশনায় যার যার জেলার হাসপাতালে তাদের পাঠিয়ে দেওয়া হয়। চট্টগ্রামের ১০ জনকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।   

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

এই বিভাগের আরও খবর