শিরোনাম
প্রকাশ : ৩১ জানুয়ারি, ২০২১ ১৫:৪৮
প্রিন্ট করুন printer

শীতের দাপটে নাকাল রাজশাহীর জনজীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

শীতের দাপটে নাকাল রাজশাহীর জনজীবন
শীত নিবারণে আগুন পোহাচ্ছেন রাজশাহীর দুই শিশু

রাজশাহীতে দিনের ব্যবধানে একলাফে তাপমাত্রার পারদ নেমেছে প্রায় ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। শনিবার রাজশাহী অঞ্চলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১২ দশমিক ০ ডিগ্রি সেলসিয়াস থাকলেও রবিবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে মাত্র ৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। 

ফলে মাত্র একদিনের ব্যবধানে রাজশাহীর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমেছে। এটি সারা দেশের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। এছাড়া রাজশাহীতে চলতি মৌসুমের এখন পর্যন্ত রেকর্ড করা সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। 

এর আগে চলতি শীত মৌসুমে রাজশাহীর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর ৭ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ফলে একদিকে রেকর্ড তাপমাত্রা হ্রাস, অন্যদিকে ঘন কুয়াশা আর হিমেল বাতাসে রাজশাহীতে আবারও বেড়েছে শীতের তীব্রতা। এতে অসহনীয় হয়ে উঠেছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। কনকনে শীতে থরথর করে কাঁপছে এ অঞ্চলের মানুষ।

রবিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সূর্যের আলো থাকলেও দুপুর গড়াতেই তা সাদা মেঘের আস্তরণে মিলিয়ে যায়। ফলে হু-হু করে বেড়েছে শীতের দাপট। আগামী দু’একদিনের মধ্যে এই অবস্থার কোন উন্নতি নেই। বরং তীব্র শৈত্যপ্রবাহের কারণে সর্বনিম্ন এই তাপমাত্রা আরও এক থেকে দুই ডিগ্রি কমে আসতে পারে। রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের জ্যেষ্ঠ পর্যবেক্ষক আনোয়ারা বেগম জানান, রবিবার সকাল ৭টায় রাজশাহীতে ৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

রাজশাহী জেলা প্রশাসক আবদুল জলিল বলেন, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শীতার্তদের মধ্যে পর্যাপ্ত সংখ্যক কম্বল বিতরণ করা হচ্ছে। তবে সরকারের পাশাপাশি সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো এগিয়ে আসলে শীতার্ত মানুষ এই শীতের অসহনীয় দুর্ভোগের হাত থেকে রক্ষা পাবে।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর