শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৩ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:২২

মোংলা বন্দরে দুর্ঘটনার কবলে দুই বিদেশি জাহাজ

বাগেরহাট প্রতিনিধি

মোংলা বন্দর জেটিতে ভিড়া দুটি বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজ দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে। বন্দরের পশুর চ্যানেলের জেটির সামনে নাব্য কম থাকায় একটি জাহাজ কাত হয়ে পড়ে, অপরদিকে জেটিতে রাবারের বয়া (প্যানডার) না থাকায় আঘাতে আরেকটি জাহাজের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত জাহাজের ক্যাপ্টেন বন্দর চেয়ারম্যান ও হারবার মাস্টারের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

জাহাজ দুটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট জানান, পাথরবোঝাই এমভি তুহিনা নামের বিদেশি জাহাজটি ১৮ জানুয়ারি মোংলা বন্দরের ৭ নম্বর জেটিতে ভিড়ে। জেটিতে থাকা অবস্থায় গত বৃহস্পতিবার সেখানে নাব্য সংকটের কারণে জাহাজটি দুটি মুরিংরোপ ছড়ি গিয়ে ওই জাহাজটি কাত হয়ে পড়ে। কাত হয়ে যাওয়ায় জাহাজটি বর্তমানে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট আল সাফা শিপিং লাইনসের খুলনার ম্যানেজার সাধন কুমার চক্রবর্তী বলেন, বন্দর জেটির সামনে ৭ মিটার গভীরতা রয়েছে বলে বন্দর কর্তৃপক্ষের ঘোষণা রয়েছে। কিন্তু জাহাজটি সেখানে রাখার পর দেখা গেছে ৪ থেকে সাড়ে ৪ মিটার গভীরতা রয়েছে। ফলে ভাটার সময় জাহাজটি কাত হয়ে যায়।

অপরদিকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মেশিনারি নিয়ে এমভি ইউএইচএল ফোকাস নামের জাহাজটি বৃহস্পতিবার ৯ নম্বর জেটিতে ভিড়ার সময় জেটির বাইরের অংশে রাবারের বয়া (প্যানডার) না থাকায় আঘাত ও ঘষায় জাহাজটির বাইরের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। শিপিং এজেন্ট অলসিস-এর স্থানীয় প্রতিনিধি সাখাওয়াত হোসেন মিলন বলেন, ক্ষয়ক্ষতি উল্লেখ করে এই জাহাজের ক্যাপ্টেনও মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ (লেটার অফ পোর্টেস্ট) দিয়েছেন।

নাব্য সংকটের কারণে জাহাজ কাত হয়ে পড়ার ঘটনার বিষয়ে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার কমান্ডার ফখরউদ্দিন বলেন, এমভি তুহিনা জাহাজের ক্যাপ্টেন অভিযোগ দিয়েছেন তার জাহাজের তলদেশ মাটিতে আটকে যাচ্ছে, ভাটার সময়ে। ড্রেজিংয়ের প্রয়োজনীয়তার কথা জানিয়েছি সিভিল ও হাইড্রোলিক বিভাগকে। সেই অনুযায়ী তারা কাজও করেছেন। আজ কিংবা আগামীকাল জেটি এলাকায় নতুন করে ড্রেজিংয়ের কাজ শুরু হবে।

অপরদিকে জেটিতে রাবারের বয়া (প্যানডার) না থাকায় এমভি ইউএইচএল ফোকাস নামের জাহাজটি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ঘটনার বিষয়ে তিনি বলেন, যা আছে সেভাবেই চলছে মোংলা বন্দর। জেটিতে রাবারের বয়া (প্যানডার) লাগানোর বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর