শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৬ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ মে, ২০২১ ০১:৪০

ঢাকা ১৪ ও কুমিল্লা ৫ আসনের উপনির্বাচন প্রথম ৯০ দিনের মধ্যে হচ্ছে না

সংবিধান অনুযায়ী ৯০ দিনের মধ্যে ভোট হওয়ার কথা রয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

করোনা পরিস্থিতির কারণে লক্ষীপুর-২ ও সিলেট-৩ আসনের মতো ঢাকা-১৪ এবং কুমিল্লা-৫ আসনের উপনির্বাচন প্রথম ৯০ দিনের মধ্যে হচ্ছে না। পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে এ আসন দুটির উপনির্বাচন অনুষ্ঠানে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

কোনো সংসদীয় আসন শূন্য হলে সংবিধান অনুযায়ী ৯০ দিনের মধ্যে ভোট হওয়ার কথা রয়েছে। দৈব-দুর্বিপাকের কারণে এ সময়ের মধ্যে ভোট করতে না পারলে সিইসি বাংলাদেশের সংবিধানের অনুচ্ছেদ ১২৩-এর দফা ৪ ক্ষমতা বলে ৯০ দিন পেছাতে পারে। এ হিসাবে ঢাকা-১৪ আসনের উপনির্বাচন ২ জুলাই এবং কুমিল্লা-৫ আগামী ১২ জুলাইয়ের মধ্যে অনুষ্ঠানের সম্ভাবনা না থাকায়, কমিশন দুটি আসনের উপনির্বাচনের জন্য আরও ৯০ দিন সময় বাড়িয়েছে। নতুন করে ৯০ দিন বাড়ানোর ফলে ঢাকা-১৪ আসনে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর এবং কুমিল্লা-৫ আসনে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত ভোট পেছানোর সুযোগ তৈরি হয়েছে।

এর আগে, লক্ষীপুর-২ এবং সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনও একই কারণে পিছিয়ে দিয়ে পরবর্তী ৯০ দিন সময় নিয়েছেন সিইসি।

প্রসঙ্গত, ঢাকা ১৪ আসনের সদস্য আসলামুল হক গত ৪ এপ্রিল এবং কুমিল্লা-৫ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু গত ১৪ এপ্রিল মারা যাওয়ার কারণে এ আসন দুটি শূন্য হয়।

অবশ্য নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা ও কুমিল্লার দুটি আসনে ভোট করতে ৯০ দিন সময় বাড়ানো হলেও, দ্বিতীয় ৯০ দিনের শুরুর দিকেই ভোট সম্পন্ন করতে চায় ইসি। কমিশন জুলাই মাসের মাঝামাঝিতে এ ভোট করার পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছে। আগামী ২ জুন অনুষ্ঠেয় কমিশন সভায় এ বিষয়ে ইসির চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানা যাবে। ওইদিন সিলেট-৩ আসনসহ এ দুটি আসনের উপনির্বাচনেরও তফসিল ঘোষণা হতে পারে বলে কমিশনের একাধিক কর্মকর্তা ইঙ্গিত দিয়েছেন। এক্ষেত্রে তিনটি আসনের ক্ষেত্রেই প্রথম ৯০ দিনের মধ্যে তফসিল ঘোষণা এবং পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে ভোট গ্রহণের তারিখ পড়বে। অবশ্য এতে কোনো আইনি জটিলতা হবে না বলে দাবি করেছেন নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা।

এই বিভাগের আরও খবর