শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ এপ্রিল, ২০২০ ০০:৫০

ঝুঁকিতে টঙ্গীর ১৯ বস্তিবাসী

আফজাল, টঙ্গী

ঝুঁকিতে টঙ্গীর ১৯ বস্তিবাসী

গাজীপুরের টঙ্গীর ১৯ বস্তিতে বসবাসরত কয়েক লাখ মানুষ করোনা ঝুঁকিতে দিন কাটছে। বস্তিতে নেই সচেতনতা, নেই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা। নেই ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকানোর কার্যকর ভূমিকা। ময়লা আবর্জনা, অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে চলছে তাদে চলাফেরা। সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, নগরীর টঙ্গী এলাকায় আমতলি বস্তি, কেরানির টেক বস্তি, ব্যাংক মাঠ বস্তি, টঙ্গী বাজার হাজী মাজার বস্তি, মিলগেট নামা বাজার বস্তি, কলা বাগান বস্তি, কাঁঠাল দিয়া বস্তি, আরিচপুর বৌ-বাজার রেললাইন বস্তি, এরশাদ নগর বস্তি, স্টেশনরোড মাছিমপুর চান্দা বস্তি, নজরুলের দোতলা বস্তি, টঙ্গী মেডিকেলের পিছনে বস্তি, মিল গেট জিন্নাত বস্তি, নিশাত বস্তি, সিপাই পাড়া বস্তিসহ ১৯টি বস্তির দুই লক্ষাধিক মানুষ এখন করোনা ঝুঁকিতে রয়েছে। ৫৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবুল হাসেম বলেন, আমার ওয়ার্ডে ৮টি বস্তি রয়েছে। তাদের সচেতন হওয়ার জন্য মাইকিং করা হয়েছে। প্রতিটি মহল্লায় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে মতিবিনিময় করা হয়েছে। এছাড়া হাত ধোয়া, পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা, মাস্ক ব্যবহারসহ বিভিন্নভাবে সচেতন করা হচ্ছে। টঙ্গী ব্যাংক মাঠ বস্তির এক বাসিন্দা আনোয়ার হোসেন বলেন, আমগো বস্তিতে সচেতন করতে কেউ আসে না। এখানকার মানুষও যার যার ইচ্ছানুযায়ী চলাফেরা করে। সবাই আল্লাহর উপর ভরসা করে চলছে। টঙ্গী পাইলট স্কুল অ্যান্ড গার্লস কলেজ অধ্যক্ষ আলাউদ্দিন মিয়া বলেন, এই ভাইরাসরোধে প্রথমে নিজে সচেতন হওয়া, পরে অন্যকে সচেতন করা। সিটি করপোরেশন টঙ্গী জোনের আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ কমিটির আহ্বয়াক এসএম সোহরাব হোসেন বলেন, সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে সিটির পক্ষ থকে আমরা মাইকিং করেছি। বিভিন্নভাবে সচেতন করে যাচ্ছি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর