শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:৪২

সোনাতলায় নেই সংযোগ সড়ক দুর্ভোগে ২০ হাজার মানুষ

আবদুর রহমান টুলু, বগুড়া

সোনাতলায় নেই সংযোগ সড়ক দুর্ভোগে ২০ হাজার মানুষ

বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার সুজাইতপুর থেকে বালুয়া সড়কে ব্রিজ থাকলেও সংযোগ সড়ক নেই। সড়কের গোবরচাপা বিলের পাশের ব্রিজের সঙ্গে সংযোগ সড়ক না থাকায় সুজাইতপুর থেকে বালুয়া পর্যন্ত সরাসরি চলাচল করতে পারছে না। আশপাশের প্রায় ২০ হাজার মানুষের ভোগান্তি চরমে উঠেছে। নানা প্রয়োজনে ও চলাচল করতে হচ্ছে প্রায় ৫ কিলোমিটার ঘুরে। এলাকাবাসী অতিদ্রুত ব্রিজের সংযোগ সড়ক নির্মাণ করে চলাচলের পথকে সুগম করার দাবি জানিয়েছেন।  জানা যায়, বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার সদর ইউনিয়নের সুজাইতপুর থেকে বালুয়া সড়কটি দীর্ঘদিন আগে নির্মিত। এই সড়ক দিয়ে স্থানীয়রা চলাচল ছাড়াও এলাকায় উৎপাদিত কৃষিপণ্য পরিবহনে ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে সাধারণ কৃষকদের। এলাকায় উৎপাদিত শীত সবজি হিসেবে লাউ, আলু, বেগুন, মরিচ, মুলা, বাঁধাকপি এবং বছরে তিনটি করে ধান চাষ হয়ে থাকে।  সুজাইতপুর থেকে বালুয়া সড়কটি পাকাকরণ করা হয় প্রায় ৪ বছর আগে। ওই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন প্রায় কয়েক হাজার মানুষ যাতায়াত করে থাকেন। বিগত বন্যার সময় ওই সড়কের গোবরচাপা বিলের পাশের্^ ব্রিজটির একপাশের্^র মাটি ধসে গেছে। এরপর থেকে ওই সড়ক দিয়ে সাধারণ মানুষসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ আছে। ফলে ওই সড়ক দিয়ে চলাচল করা মানুষের গন্তব্য স্থলে পৌঁছাতে যাতায়াত করতে হয় প্রায় ৪ থেকে ৫ কিলোমিটার দূরের পথে ঘুরে ঘুরে। ওই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন প্রায় ২০/২৫ হাজার মানুষ উপজেলা শহর ও জেলা শহরে যাতায়াত করেন। এছাড়া বিভিন্ন যাত্রীবাহী ও পণ্যবাহী যানবাহন চলাচল করে। স্থানীয় আযাদুল ইসলাম, শামিম হোসেনসহ অনেকে জানিয়েছে, সরকারের লাখ লাখ টাকা খরচ করে সড়ক পাকাকরণ ও ব্রিজ নির্মাণ করা হলেও ওই সড়কটি জনগণের কোনো কাজে আসছে না। প্রায় ১০ মাস ধরে সড়কটি দিয়ে চলাচল বন্ধ থাকার বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসন ও জন প্রতিনিধিরা অবগত থাকলেও কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। দ্রুত সময়ের মধ্যে ব্রিজের পাশের্^র মাটি ভরাট করে চলাচল স্বাভাবিক করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানান তারা। সোনাতলা সদর ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম বুলু বলেন, এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলীকে জানানো হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর