শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৪৭

বাঁশের সাঁকোয় পারাপার

নীলফামারী প্রতিনিধি

বাঁশের সাঁকোয় পারাপার

বাঁশের সাঁকোয় ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে ১৪ গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ। নীলফামারী সদর উপজেলার পঞ্চপুকুর-চাপড়া সরমজানী ও চড়াইখোলা ইউনিয়নের সংযোগে সাঁকোর পরিবর্তে দ্রুত ব্রিজ নির্মাণের দাবি স্থানীয়দের। পঞ্চপুকুর ইউনিয়নের উত্তর কাচারিপাড়া-কারবালার ডাঙ্গা এলাকার ওপর দিয়ে বহমান যমুনেশ্বরী নদীর ওপর অবস্থিত এই সাঁকো। বাপ-দাদার আমল থেকে এই পথ দিয়ে যাতায়াত করছেন স্থানীয়রা। সরেজমিন গিয়ে দেখা যায় উত্তর কাচারিপাড়া হয়ে বাঁশের সাঁকো পার হয়ে যেতে হয় ‘কারবালার ময়দান’। সেখানে নামাজ আদায় করেন ১৪ গ্রামের মানুষ। সাঁকোর ওপর দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে চলছে বাইসাইকেল, অটোরিকশা কিংবা মোটরসাইকেল। যে কোনো মুহূর্তে সাঁকো ভেঙে ঘটতে পারে দুর্ঘটনা। প্রতি বছর বর্ষার আগেই স্থানীয়রা নগদ টাকা, বাঁশ এবং শ্রম দিয়ে সাঁকো তৈরি করে থাকেন। এতে সহযোগিতা করে ইউনিয়ন পরিষদ। স্থানীয় রবিউল ইসলাম (৫৫) জানান, বাপ-দাদার আমল থেকে আমরা বাঁশের সাঁকো ব্যবহার করে নদী পার হয়ে আসছি। বর্ষা মৌসুমে কষ্টের শেষ থাকে না। অনেকে আশ্বাস দিয়েছেন। ইঞ্জিনিয়ার এসে মাপজোক করে নিয়ে গেছেন, কিন্তু কাজ হচ্ছে না। গৃহবধূ তানজিনা বেগম বলেন, এখানে ব্রিজ হলে যাতায়াতের অনেক সুবিধা হয়। সেতুর অভাবে এলাকাটিও পিছিয়ে রয়েছে। পঞ্চপুকুর ইউপি চেয়ারম্যান হবিবর রহমান বলেন, এখানে ব্রিজ নির্মাণের প্রক্রিয়া চলছে। ব্রিজটি হয়ে গেলে দুর্ভোগ কমে যাবে স্থানীয়দের। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের নীলফামারীর সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম জানান, ওই এলাকায় ব্রিজ নির্মাণের জন্য অফিশিয়ালি যা করা দরকার আমরা করেছি। একটি প্রকল্প পাঠানো হয়েছে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে। পাস হয়ে এলে দ্রুত কাজ শুরু হবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর