রবিবার, ৩ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ টা

টিসিবির পণ্য বিক্রিতে অনিয়ম

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

টিসিবির পণ্য বিক্রিতে অনিয়ম

সুবিধাভোগীদের দেওয়া কার্ড জমা নিয়ে টোকেনের মাধ্যমে টিসিবির পণ্য বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার মাইজখাপন ইউনিয়নে। গত শুক্রবার মাইজখাপন ইউনিয়ন পরিষদে এই টোকেনের মাধ্যমে বিতরণ করা হয় টিসিবির পণ্য। এ বিষয়ে গঠন করা হয়েছে তদন্ত কমিটি। একাধিক সুবিধাভোগী জানান, গত ঈদুল ফিতরের আগে পণ্য দেওয়ার সময় চেয়ারম্যান তাদের কাছ থেকে কার্ডগুলো জমা নিয়েছিলেন। শুক্রবার সকালে গিয়ে তারা দেখেন, টোকেন ছাড়া মাল দেওয়া হচ্ছে না। জানতে চাইলে চেয়ারম্যান বলেন, তোমাদের মাল আসেনি। একাধিক সাধারণ ইউপি সদস্য ও সংরক্ষিত নারী সদস্য জানান, ২৭ জুন চেয়ারম্যান তাদের নিয়ে মিটিং করেছেন। তখন তিনি বলেছেন, গতবারের তুলনায় এবার মাল কম এসেছে। মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছিল প্রতি ওয়ার্ডে ৬৫টি করে টোকেন দেওয়ার। শুক্রবার সকালে পরিষদে আসার পর মাত্র ৯টি টোকেন হাতে ধরিয়ে দেন চেয়ারম্যান। এগুলো থেকে আমরা কাকে রেখে কাকে দেব। ওয়ার্ডের অনেকেই মাল না পেয়ে খালি হাতে ফিরে গেছেন। ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ তারু জানান, ইউনিয়নে ২ হাজার ৬৮৪ জন টিসিবি কার্ডধারী রয়েছেন। আমি মাল পেয়েছি ১ হাজার জনের। এখন কী করব? এ বিষয়ে ওয়ার্ড সদস্যদের নিয়ে মিটিং করে ইউএনওর সঙ্গে যোগাযোগ করেই পণ্য বিতরণ করেছি। ডিলার আবদুস সালাম জানান, কার্ডগুলো ২০ দিন আগেই চেয়ারম্যানকে বুঝিয়ে দিয়েছেন। তিনি ভোক্তাদের দেননি। সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী বলেন, টোকেনের মাধ্যমে পণ্য বিতরণের বিষয়টি জেনে চেয়ারম্যান ফোন দিয়ে কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছেন। পর্যাপ্ত পরিমাণ পণ্য মজুদ রয়েছে উল্লেখ করে তিনি জানান, তালিকার বাইরে টোকেনের মাধ্যমে পণ্য বিতরণের বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তদন্ত কমিটির প্রধান স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক (ডিডিএলজি) হাবিবুর রহমান বলেন, খুব দ্রুত তদন্ত সম্পন্ন করে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

সর্বশেষ খবর