শিরোনাম
সোমবার, ৮ মে, ২০২৩ ০০:০০ টা

সখীপুরে জরাজীর্ণ ভবনে স্বাস্থ্যসেবা

সখীপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

সখীপুরে জরাজীর্ণ ভবনে স্বাস্থ্যসেবা

টাঙ্গাইলের সখীপুরে দেয়াল ও ছাদে ফাটল ধরা জরাজীর্ণ ভবনের ভিতরেই চলছে স্বাস্থ্যসেবা। ছয় মাসেরও বেশি সময় ধরে গর্ভবতী মায়েদের ডেলিভারি কার্যক্রম বন্ধ এবং আবাসিক ভবন দীর্ঘদিন ধরেই পরিত্যক্ত হওয়ায় ব্যাহত হচ্ছে উপজেলার বহেড়াতৈল ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের স্বাস্থ্যসেবা। পাঁচ বছর ধরে নিরাপত্তা প্রহরীর পদটি শূন্য রয়েছে বলে জানায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের তিনটি রুমের দেয়াল ও ছাদে ফাটল এবং খসে পড়ছে পলেস্তরা। ওই ভবন ঘেঁষে তৈরি করা অতিরিক্ত ছোট্ট একটি রুমের ভিতরে প্রয়োজনীয় ওষুধ, কাগজপত্র এবং অন্য একটি রুম ব্যবহার করছেন উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল কর্মকর্তা, কেন্দ্র পরিদর্শিকা ও আয়া। শিশু, বৃদ্ধ ও গর্ভবতী মায়েদের ফাটল ধরা ভবনেই প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের কারণেই ছয় মাসেরও বেশি সময় ধরে গর্ভবতী মায়েরা ডেলিভারি করাতে আসেন না বলে ধারণা করছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের কর্তৃপক্ষ। অফিস সূত্র জানা যায়, ২০১৯ সালে অফিস সহকারী মারা গেছেন। এ ছাড়া দীর্ঘদিন ধরেই আবাসিক ভবন পরিত্যক্ত হয়ে আছে। ডাবাইল গ্রামের গর্ভবতী মা রুমি আক্তার বলেন, ফাটল ধরা ভবনে বসেই স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে গেলাম। এ ছাড়া আর কোনো উপায়  নেই, এখান থেকে সখীপুর সদর হাসপাতালের দূরত্ব প্রায় ৭-৮ কিলোমিটার। উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল কর্মকর্তা রংলাল চন্দ্র সরকার বলেন, প্রতিদিন প্রায় ৫০ জনেরও বেশি রোগী সেবা নিচ্ছে।

সর্বশেষ খবর