শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ মে, ২০১৯ ১৭:৪৯

ধুনটে বিএনপির ৯ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে গরু চুরির মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া:

ধুনটে বিএনপির ৯ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে গরু চুরির মামলা

বগুড়ার ধুনটে এক কৃষকের গোয়ালঘর থেকে গরু চুরির অভিযোগে বিএনপি ও যুবদল নেতাসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। সোমবার বগুড়ার বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে আসফুল খাতুন নামে এক গৃহবধূ মামলাটি দায়ের করেছেন। বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে ধুনট থানার ওসিকে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলা ও স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, ধুনট উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের বিলচাপড়ী গ্রামের মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে দরিদ্র কৃষক শহিদুল ইসলাম তার বাড়িতে দুটি গরু ও একটি বকনা বাছুর লালন পালন করে আসছিল। প্রতিদিনের মতো গত ১৩ মে শহিদুল ইসলাম তার গোয়ালঘরে গরু-বাছুর রেখে তালা দিয়ে ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে। পরের দিন সকালে সে গোয়াল ঘরের তালা ভাঙ্গা অবস্থায় দেখতে পায়। পরে গোয়াল ঘরে প্রবেশ করে দেখে ভিতরে কোন গরু নাই। তারা স্থানীয় লোকজন নিয়ে খোঁজাখুজি করতে থাকে। এ অবস্থায় এলাঙ্গী ইউনিয়ন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক বিলচাপড়ী গ্রামের মৃত গোলাম অহেদের ছেলে রাসেল মাহমুদ, তার ভাই এলাঙ্গী ইউনিয়ন যুবদল নেতা টিকা মিয়া ও একই গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের মাহাবুর রহমান ওই কৃষককে দেড় লাখ টাকার বিনিময়ে চুরি হওয়া গরু বের করে দেওয়ার কথা বলে। 

এ কথায় সন্দেহ হলে কৃষক শহিদুল ইসলাম স্থানীয় মাতব্বরদের কাছে বিচার প্রার্থনা করলে গত ১৭ মে গ্রাম্য শালিস বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। শালিসে গ্রামবাসীর জিজ্ঞাসাবাদে রাসেল, টিকা ও মাহাবুর প্রকাশ্যে চুরির বিষয়টি স্বীকার করে দেড় লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে রাজি হয়। কিন্তু তারা দীর্ঘদিনেও টাকা না দিয়ে বিভিন্ন তালবাহানা করছে। তাই নিরুপায় হয়ে কৃষক শহিদুল ইসলামের স্ত্রী আসফুল খাতুন বাদী হয়ে বিএনপি নেতা রাসেল মাহমুদসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে আদালতে গরু চুরির মামলা দায়ের করেছেন।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, কৃষকের গরু চুরি মামলার কপি এখনও থানায় পৌঁছেনি। কপি হাতে পেলে সুষ্ঠু তদন্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য