২১ অক্টোবর, ২০২১ ০৫:০৩

অপারেশনে জরায়ুর টিউমারের বদলে মূত্রথলি কাটার অভিযোগ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

অপারেশনে জরায়ুর টিউমারের বদলে মূত্রথলি কাটার অভিযোগ

প্রতীকী ছবি

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলায় একটি প্রইভেট হাসপাতালে জরায়ুর টিউমার অপরেশন করতে এসে সাহিদা আক্তার লিপি (৪০) নামে এক গৃহবধুর জরায়ুর টিউমারের বদলে মূত্রথলি কাটার অভিযোগ উঠেছে।

৫ মাস পর ঘটনাটি জানাজানি হয়ে পড়লে এ নিয়ে কোটচাঁদপুরে তোলপাড় শুরু হয়েছে। লিপি চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার সেনেরহুদা গ্রামের আশাদুল হকের স্ত্রী। লিপি জানান, তার জরায়ুতে টিউমার হওয়ার কারণে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করলে গত ২৭ মে তিনি কোটচাঁদপুর শহরের লিটনের মালিকানাধীন প্রইভেট হাসপাতালে ভর্তি হন। ওইদিন বিকালে ডা. রাকিবুল ইসলাম ও ডা. আনিছুর রহমান তার অপারেশন করেন। অপারেশন করতে গিয়ে ডাক্তাররা তার জরায়ুর বদলে মূত্রথলি কেটে ফেলেন। 

অপারেশন করার ১০ দিন ক্লিনিকে অবস্থান করার পরও তিনি সুস্থ না হলে গত ২৫ জুন চুয়াডাঙ্গা হাসপাতালের সিনিয়র কনসালট্যান্ট (অবস অ্যান্ড গাইনি) ডা. আকলিমা খাতুনকে দেখান। সেখানে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে চিকিৎসক জানান, লিপির মূত্রথলি কেটে ফেলা হয়েছে। গত ১৪ আগস্ট তিনি ফরিদপুরে ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশন মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ইউরোলজী বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. জে.সি সাহার কাছে যান। সেখানেও পরীক্ষায় মূত্রথলি কাটা ধরা পড়ে। 

এ অবস্থায় ডাক্তার ডা. জে.সি সাহা পুনরায় অপারেশনের পরামর্শ দেন। কিন্তু আর্থিক সংগতি না থাকায় লিপি চিকিৎসা করাতে পারছেন না। বর্তমানে লিপির স্বামী ধার দেনা করে টাকা জোগাড় করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। সেখানে চিকিৎসক ডা. শোভা বর্ধনের অধীনে লিপি চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 

এ ব্যাপারে ডা. রাকিবুল ইসলাম বলেন, আমি অপারেশন করিনি। অপারেশনের কাজে ডা. আনিছুর রহমানকে আমি কেবল সহায়তা করেছি। ডা. আনিছুর রহমান লিপির অপারেশন করার কথা স্বীকার করে বলেন, এ জাতীয় অপারেশন করতে গেলে ভুলত্রুটি হতেই পারে। রোগী আমার সাথে যোগাযোগ করলে আমি বিনা খরচে আবার অপারেশন করে দেব। বিষয়টি নিয়ে কোটচাঁদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আব্দুর রশিদ বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত রোগী অভিযোগ দিলে, বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর