৯ ডিসেম্বর, ২০২১ ১২:২৩

মাদারীপুরের ইউপি নির্বাচন নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৫

মাদারীপুর প্রতিনিধি

মাদারীপুরের ইউপি নির্বাচন নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৫

প্রতীকী ছবি

মাদারীপুরের রাজৈরে ৪র্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনের ক্যাম্প অফিস খোলাকে কেন্দ্র করে হামলা ও গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (৮ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৮ টার দিকে উপজেলার কবিরাজপুর ইউনিয়নের পান্তাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এসময় ৫ জন আহত হয়। এদের ভেতরে একজনকে গুরুতর অবস্থায় ফরিদপুর শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আগামী ২৬ ডিসেম্বর চতুর্থ ধাপে রাজৈর উপজেলার কবিরাজপুর ইউনিয়নের নির্বাচনে ঘোড়া মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী টিপু সুলতানের সমর্থিত ৪ নং ওয়ার্ডে মেম্বার প্রার্থী কাঞ্চন মাতব্বরের (মোরগ মার্কা) একটি নির্বাচর্নী ক্যাম্প পান্তাপাড়া এলাকায় বুধবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে উদ্বোধন করতে গেলে একই ইউনিয়নের আনারস মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী চাঁন মিয়া মাতব্বরের সমর্থক লক্ষণ দাসসহ কয়েকজন অতর্কিত ভাবে ইউপি মেম্বার কাঞ্চন তালুকদারের কর্মী সমর্থকদের উপরে হামলা করে। 

হামলায় মেম্বার প্রার্থী কাঞ্চন মাতব্বরের মা ফিরোজা বেগম ( ৬৫), শিউলি বেগম (৩৫), নূর মাতুব্বর (৪৭), কালাম বয়াতী (৫০) ও মহসিন শিকদার (২৫) আহত হয়। এদের মধ্যে গুরুতর আহত অবস্থায় মেম্বার প্রার্থী কাঞ্চন মাতব্বরের মা ফিরোজা বেগমকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ইউপি মেম্বার প্রার্থী কাঞ্চন মাতব্বরের মামা ইসরাফিল হাওলাদার বলেন, আমরা আমাদের নির্বাচনী ক্যাম্প অফিসটি পান্তাপাড়ায় উদ্বোধন করতে না করতেই চাঁন মিয়া মাতব্বরের লোকজন এসে আমাদের উপরে হামলা চালিয়ে আহত করে। এসময় দুইটি গাড়িও ভাংচুর করেছে।

এই বিষয়ে চাঁন মিয়া মাতব্বর বলেন, এটা আমার প্রতিদ্বন্দ্বী টিপু সুলতানের প্যানেলের মেম্বার প্রার্থী কাঞ্চনের সাজানো নাটক। আমার নির্বাচনী মাঠ নষ্ট করার চেষ্টা করা ছাড়া আর কিছু নয়। ওদের অভিযোগ সত্য নয়।

আরেক চেয়ারম্যান প্রার্থী টিপু সুলতান সাংবাদিকদের বলেন, নির্বাচন শুরু করার আগেই এই ধরনের হামলা করে নির্বাচনী পরিবেশ নষ্ট করার পায়তারা করছে। আমি প্রশাসনের কাছে এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার দাবী জানাচ্ছি।

এই বিষয়ে রাজৈর থানার ওসি শেখ সাদী বলেন, ইউপি মেম্বার নির্বাচনী ক্যাম্প অফিসে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে আমরা সেখানে পুলিশ পাঠিয়েছি। আমরা লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তীতে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত

সর্বশেষ খবর