৮ ডিসেম্বর, ২০২২ ০৮:২০

বিশ্বনাথে আমনের অধিক ফলনে কৃষকের মুখে হাসি

সাইফুল ইসলাম বেগ, বিশ্বনাথ (সিলেট)


বিশ্বনাথে আমনের অধিক ফলনে কৃষকের মুখে হাসি

চলতি মৌসুমে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলায় লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি আমন ধানের ফলন হয়েছে। এ বছর আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় আশানুরুপ ফলনে কৃষকের মুখে ফুটেছে হাসি। উপজেলা জুড়ে চলছে ধান কাটা ও সংগ্রহের কাজ। 

সরেজমিনে দেখা যায়, উপজেলার মাঠে মাঠে আমন ধান কাটার ধুম পড়েছে। বেশির ভাগ জমিতে কম্বাইনহারভেস্টার (ধান কাটার যন্ত্র) দিয়ে ধান কাটতে দেখা যায়। একই যন্ত্রে হচ্ছে কাটা, মাড়াই-ঝাড়াই সব। জমি থেকেই ধান বস্তাবন্ধি করে বাড়ি নিয়ে যাচ্ছেন কৃষক। কিছু কিছু এলাকায় শ্রমিক দিয়ে কাটানো হচ্ছে ধান। কেউ বা আটি বেঁধে মাথায় করে নিয়ে যাচ্ছেন বাড়ি। ইতিমধ্যেই উপজেলায় ২৬ ভাগ ধান কাটা সম্পন্ন হয়েছে।
কৃষি অফিস সূত্র জানায়, বিশ্বনাথ উপজেলায় এ বছর ১৩ হাজার ২০৫ হেক্টর লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে ১৩ হাজার ২৩০ হেক্টর জমিতে আমন ধান চাষ হয়েছে। এর মধ্যে উফসী বিভিন্ন জাতের আমনের চাষ হয়েছে বেশি। স্বল্প জীবনকালীন উচ্চ ফলনশীল জাতের মধ্যে রয়েছে ব্রি ৮৭, ব্রি ৭৫, ব্রি ৪৯ ও বন্যার সহনশীল ব্রি ৫২ ধান।

কৃষকরা জানান, এ বছর অনুকূল আবহাওয়া, পোকার আক্রমণ ও রোগ-বালাই কম হওয়ায় অধিক ফলন হয়েছে। যদি ভালো দাম পাওয়া যায়, তাহলে চাহিদা ও খরচ পুষিয়ে লাভ হবে।      
এ বিষয়ে কথা হলে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কনক চন্দ্র রায় বলেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের প্রচষ্টোয় আমনের বাম্পার ফলন হয়েছে এবার। এ বছর আগাম বন্যায় আউশ ধান ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং অনেক জমিতেই আমন ধান দেরিতে রোপন করতে হয়। এ পরিস্থিতে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় নাবী আমন ধানের জাত বিআর ২২ এবং বিআর ২৩ এর বীজ বিতরণ করা হয়। যেসব নমুনা শস্য কর্তন করা হয়েছে তার উপর ভিত্তি করে আশা করা যায়, এ বছর ধানের গড় ফলন ৪.০৫ টন পার রেক্টর পাওয়া যাবে। 

বিডি প্রতিদিন/এএ

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর